দিল বেচারা সিনেমাটা রিলিজ হওয়া মাত্রই বেশ হইচই ফেলেছে দেখুন বিশদে

Sushant singh rajput
ছবি সূত্র: গুগুল
Advertisement

দিল বেচারা! সদ্য রিলিজ হওয়া এই মুভিটি নিয়ে সব যায়গায় হইচই পরে গেছে। ছবিটি দেখে সবাই উচ্ছাসিত কিন্তু কারোর মনে খুশি নেই। সুশান্ত সিং রাজপুত -এর শেষ মুভিটি সমস্ত রেকর্ড ভাংলেও, তার সব ফ্যানদের চোখেই জল। যে ছবির পরতে পরতে বেঁচে থাকার লড়াই ৷ সেই ছবির নায়কের এমন পরিণতি ! হ্যাঁ, ছবি দেখে একই প্রশ্ন বারে বারে মাথায় আসে ৷ চোখ ফেরানো যায় না সুশান্তের সেই হাসি আর সেই চাহনি দেখে ৷ এক পলকে ফের যেন মনের মধ্যেযায়গা করে নেয় সুশান্ত সিং রাজপুত ৷

ঠিক তেমনি যেন মেনে নিতে পারছেন না “দিল বেচারা” মুভিটির নাইকা সঞ্জনা। তিনি তার এই মানসিক অবস্থার কথা সবার সাথে শেয়ার করলেন। তিনি বললেন
“আমি আমার ওয়েব পৃষ্ঠাগুলিকে অন্তত ১০০ বার রিফ্রেশ করেছিলাম এই আশায় যে আমি হয়তো কোনও ভয়াবহ রসিকতা পড়ছি। আমি চাইলেও এটাকে বিশ্বাস করে উঠতে পারছিলাম না”। সঞ্জনা তার নোটে যোগ করেছেন: “আপনি আমাদের সাথে কী রেখে গেছেন তা বোঝার জন্য আমরা চিরকাল ব্যয় করতে যাচ্ছি এবং আমি ব্যক্তিগতভাবে কখনই সক্ষম হব না এটা মানতে I শুধু জেনে রাখুন, আপনার লক্ষ লক্ষ ভরা দেশ রয়েছে,  যারা আপনার দিকে তাকাচ্ছে, আপনাকে ধন্যবাদ জানাতে  চাইছে, আপনার ওই হাসি যেন সমস্ত আকাশ জুরে ছড়িয়ে রয়েছ। আমি আপনাকে জানি, আপনি পৃথিবীতে একমাত্র সুখ চেয়েছিলেন

তিনি এইটুকু সময়ে অনেক বিষয় নিয়ে বুঝিয়েছেন আমাদের চলচ্চিত্রের প্রক্রিয়াটির মধ্য দিয়ে আমাকে বড় এবং ছোট জিনিসগুলির বিষয়ে গাইড করতে, সেটকে আমার শক্তি সংরক্ষণ করতে বলার জন্য;
এমনকি আপনি যে ক্ষুদ্রতম সংক্ষিপ্তসারটিও ভেবে দেখেছেন তা কোনও দৃশ্যের প্রেক্ষাপটকে পরিবর্তন করতে পারে এবং আন্তরিকভাবে আমার মতবিরোধকে মেনে নেবে; আমরা একসাথে যেভাবে ভারতের শিশুদের জন্য একটি উজ্জ্বল শিক্ষাগত ভবিষ্যত গড়ে তুলতে পারি সেগুলি নিয়ে আলোচনা করা, এছাড়াও আরও অনেক কিছু, আপনি একজন শক্ত মনের মানুষ ছিলেন, এবং আপনি সর্বদা থাকবেন।

এবং সম্প্রতি তিনি ইনস্টাগ্রাম- এ এটাও শেয়ার করলেন যে স্যুটিং এর ফাঁকা সময় গুলোতে সে কিভাবে কাটাত,

সঞ্জনা লিখলেন, ‘ম্যানি তাঁর পাওয়ার ন্যাপ নিচ্ছে, তারে গিন গানের শ্যুটিংয়ে ৷ আর কিজি কাঁধ এগিয়ে দিয়েছি, নিশ্চিন্তে ঘুমিয়ে পড়ো তুমি !’

Advertisement