3500-corona-positive-in-india-on-05-april
3500-corona-positive-in-india-on-05-april
Advertisement

কলকাতা হান্ট ডেস্ক : সারা দেশময় কর্নার আতঙ্কে আতঙ্কিত মানুষ। ভাইরাসের সংক্রমণ আটকাতে প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদির ডাকে সারাদেশে চলছে 21 দিনের লকডাউন। সংক্রমণ যাতে না বাড়ে সেজন্য নানা পদক্ষেপ নিচ্ছে রাজ্য ও কেন্দ্রীয় সরকার।

কিন্তু তার মাঝেই কিছু মানুষ ব্লগ ডাউন এ তো কান্না করেই বাইরে বেরুচ্ছেন। যার ফলে সংক্রমণ আটকানো সম্ভব হচ্ছে না। হু হু করে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। যতই করা হোক প্রশাসনিক ব্যবস্থা অথবা যতই পদক্ষেপ না হোক রাজ্য কিংবা কেন্দ্র সরকার থেকে, যতদিন মানুষ নিজের থেকে না সচেতন হচ্ছে ততদিন সংক্রমণ আটকানো সম্ভব নয়।

রাজ্য ও কেন্দ্রীয় সরকার সংক্রমণ আটকানোর জন্য বহু পদক্ষেপ নিচ্ছে। তার সাথে সাথে দেশের প্রশাসনিক ব্যবস্থা বেশ ভালই তৎপরতার সাথে কাজ করে চলেছে। কিন্তু তাও আটকানো যাচ্ছে না মানুষকে। সর্বপ্রথম ভারতে করনা আক্রান্ত হয়েছিল 30 শে জানুয়ারি। তারপর থেকে আজ পর্যন্ত প্রায় সাড়ে তিন হাজার মান খুব বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। এবং মৃত্যু হয়েছে প্রায় 100 জন মানুষের।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য আধিকারিক থেকে জানা যাচ্ছে গত 24 ঘন্টায় প্রায় কাছাকাছি 500 জন মানুষ করণা সংক্রমণ হয়েছেন। এবং দেশের মোট 736 টি জেলার মধ্যে 274 টি জেলায় সংক্রমিত মানুষের খোঁজ পাওয়া গেছে। আজ রবিবার এক সাংবাদিক সম্মেলনে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী দেশবাসীর উদ্দেশ্যে বলেন, মানুষকে নিজেই হুশিয়ার সাবধান হতে হবে তাহলেই সংক্রমণ আটকানো যাবে।