সড়ক টু’-এর ট্রেলার রিলিজ করার পরই ‘ডিসলাইক’-এর ঝড়, মুখ ফেরালেন জনতার একাংশ

sadak 2
sadak 2
Advertisement

সম্ভবত প্রথমবারের মতো শীর্ষস্থানীয় বলিউড তারকাদের শিরোনামে নির্মিত একটি ছবি লাইক এর চেয়ে ইউটিউবে বেশি ডিসলাইক পেয়েছে। চলচিত্র টির নির্মাতা হল মহেশ ভাট। ১৯৯১সালের “সড়ক” এর সিক্যুয়েল আসছে বলে যখন মহেশ ভাট ঘোষণা করেছিলেন তখন থেকে দর্শকদের মধ্যে আগ্রহ বাড়তে শুরু করেছিল। “সড়ক ২” এর সিক্যুয়েলে সঞ্জয় দত্ত আলিয়া ভাট ও তার সাথে আদিত্য রয় কাপুর স্ক্রিন শেয়ার করবেন বলে শোনা যায়। তারকা তালিকা ঠিক করে শুটিং শুরু হয়ে যায়। এর মধ্যেই ঘটে যায় সুশান্ত সিং রাজপুত -এর মৃত্যু। ১৪ই জুন সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকে সাদাক 2 সোশ্যাল মিডিয়ায় যেন আকস্মিকভাবে আঁকছে। ইন্টারনেটের একটি অংশ বিশ্বাস করে যে অভিনেতা এর আগে সাতটি চলচ্চিত্র হারিয়েছিলেন বলে অভিযোগ করা হয়েছিল এবং তিনি “বহিরাগতদের প্রতি বলিওয়ুডের নেপোটিস্টিক মনোভাব” এর শিকার হয়েছিলেন।

এরই ফলে নেট দুনিয়ায় জনতা তাদের ক্ষোভ উগরে দেয়।
মুভুটি কেউ দেখবে না বলে সবার মুখে মুখে শোনা যাচ্ছে।
এবং মুভুটির ট্রেলার থেকেই সেই আঁচ পাওয়া যায়।

মহেশ ভট্টের ‘সড়ক ২’ ছবিতে তাঁর কন্যা পূজা ও আলিয়া অভিনয় করেছেন নির্মাতা সিদ্ধার্থ রায় কাপুরের কনিষ্ঠ ভাই আদিত্য।

সুশান্তের শ্যালক ভাই বলিউডে নেপোমিটিবাদ ট্র্যাক করতে নেপোমিটার নামে একটি অ্যাপও চালু করেছিলেন। অ্যাপটিতে পরিমাপ করা প্রথম চলচ্চিত্রটি ছিল ‘সড়ক ২’ এবং নেপোমিটার এটি ৯৮% স্বজনপ্রেমিক বলে মনে করেছে।
ছবির ট্রেলার মুক্তির পরই ডিসলাইকের মাত্রা বাড়তে শুরু করে। কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই সেটা পৌঁছে গিয়ে দাঁড়ায় প্রায় ১ মিলিয়নে। ডিসলাইকের পাশাপাশি সড়ক টু-কে নিয়ে তৈরি হতে শুরু করে বিভিন্ন ধরনের হাস্যকর মিম।

“সড়ক ২” কে নিয়ে নেটদুনিয়ায় বিক্ষোভের পাশাপাশি বিস্ফোরণ দাগছে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ। “সড়ক ২” ট্রেলারে হিন্দু ভাবাবেগে আঘাত করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন ভি এইচ পি। এই নিয়ে শুরু হয়েছে আরো একদফা শরগোল।

সড়ক টু নিয়ে নেট জনতার ক্ষোভের পাশাপাশি তোপ দাগতে শুরু করে বিশ্ব হিন্দু পরিষদও। সড়ক টু-এর ট্রেলার হিন্দুদের ভাবাবেগে আঘাত করছে বলে অভিযোগ শানাতে শুরু করেন ভিএইচপি। যা নিয়ে আরও একদফা জোর শোরগোল শুরু হয়ে যায়।

Advertisement