18 থেকে 60 বছরের মধ্যে সবার একাউন্টে ঢুকছে 5,000 থেকে 30,000 টাকা পর্যন্ত! মুখ্যমন্ত্রীর নতুন এই 5 প্রকল্পে! রইল বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই রাজ্যবাসীর জন্য একাধিক প্রকল্প সূচনা করেছে। তবে যে বিশেষ পাঁচটি প্রকল্প রাজ্য সরকারের সব থেকে বেশি মাত্রায় জনপ্রিয়তা লাভ করতে পেরেছে সেই সমস্ত প্রকল্প সম্পর্কে আজকের এই প্রতিবেদনে আলোচনা করা হবে। এবং এই প্রকল্প নারী-পুরুষ উভয় আবেদন করতে পারেন। এবং এই প্রকল্পের মাধ্যমে আপনারা এক হাজার থেকে 25 হাজার টাকা সরাসরিভাবে সরকারি অনুদান পেতে পারেন আসুন দেখে নিই প্রকল্প গুলি কি কি

সামাজিক সুরক্ষা যোজনা প্রকল্প :- সামাজিক সুরক্ষা যোজনা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায় এরাজ্যের বুকে শুরু হয়েছে সামাজিক সুরক্ষা যোজনা প্রকল্প এই প্রকল্পের আওতায় বিভিন্ন রকম ভাবে সাহায্য করা হয় সাধারন খেটে খাওয়া গরিব মানুষদের কে। এই প্রকল্পের আওতায় জানানো হচ্ছে যে একাদশ শ্রেণিতে পড়লে 4000 টাকা দ্বাদশ শ্রেণীতে পড়লে 5000 টাকা এবং আইটিআই পড়লে 6000 টাকা আর্থিক অনুদান দেবে সরকার।

শুধুমাত্র এটাই নয় তার পাশাপাশি গেলে অতি অবশ্যই আপনার বয়স 18 বছর 60 বছরের মধ্যে হতে হবে। তার পাশাপাশি আপনার পরিবারের মাসিক আয় 6500 টাকার নিচে হতে হবে ।এবং এখানে আবেদন করতে গেলে আপনি দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে যোগাযোগ করতে পারেন তার পাশাপাশি অনলাইনে আবেদন করতে পারেন।

কন্যাশ্রী প্রকল্প :- কন্যাশ্রী প্রকল্প এই কন্যাশ্রী প্রকল্পের মাধ্যমে অবিবাহিত স্কুল পড়ুয়ারা অর্থাৎ মেয়েরা এককালীন ২৫ হাজার টাকা করে পেয়ে যায় সরকারের তরফ থেকে। তবে এই প্রকল্পকে মূলত দুইটি ভাগে ভাগ করা হয়েছে যথাক্রমে কে 1 এবং কেটু 2। K1 এ 13 থেকে 18 বছর বয়সী অবিবাহিত মহিলারা বার্ষিক হাজার টাকা করে অনুদান পাবে এবং k 2 বিভাগে 18 বছর থেকে 19 বছরের অবিবাহিত মেয়েরা এককালীন 25 হাজার টাকা করে সরকারি অনুদান পাবেন। আবেদন করার জন্য অবশ্যই সরকারি স্কুলে পাঠাতে হবে এবং সরকারি স্কুল থেকে আবেদনপত্র পাওয়া যাবে।

কৃষক বন্ধু (নতুন) প্রকল্প :- কৃষক বন্ধু নতুন প্রকল্পে খরিফ ও রবি চাষ শুরুর আগে চাষের উপকরণ কেনার সুবিধার জন্য এক একর বা তার বেশি চাষযোগ্য জমির জন্য বছরে দুই কিস্তিতে সর্বাধিক ১০ হাজার টাকা অনুদান দেওয়া হয় পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফে। জমি এক একর কিংবা তার কম হলে আনুপাতিক হারে বছরে দুই কিস্তিতে ন্যুনতম ৪ হাজার টাকা কৃষকদের দেওয়ার কথা বলা হয়েছে এই প্রকল্পে।

২) একইসঙ্গে ১৮-৬০ বছর বয়সী কোনও কৃষক কিংবা ভাগচাষীর মৃত্যু হলে তাঁর আইনসম্মত উত্তরাধিকারীকে এককালীন ২ লক্ষ টাকা অনুদান দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। কৃষকদের নিজের নাম, চাষযোগ্য জমির পরচা, পাট্টা কিংবা বন বিভাগের পাট্টা থাকলে কিংবা বর্গা নথিভুক্ত থাকলে কৃষক বন্ধু নতুন প্রকল্পের সুবিধা পাওয়া যাবে। নিজের নামে জমি না থাকলে দলিল, দানপত্র, দেবোত্তর কিংবা অন্য কোনও নথি থাকলে, পঞ্চায়েত প্রধানের দেওয়া ওয়ারিশন সার্টিফিকেট-সহ প্রকল্পের সুবিধা পাওয়ার জন্য আবেদন করা যাবে।

রূপশ্রী প্রকল্প :- ৩১ জানুয়ারি ২০১৮ তারিখে রাজ্য বাজেটে ২০১৮-১৯ অর্থবর্ষে পশ্চিমবঙ্গের মাননীয় অর্থমন্ত্রী ,আর্থিক দুর্দশাগ্রস্ত পরিবারের প্রাপ্তবয়স্ক কন্যাদের এককালীন ২৫০০০ টাকা অনুদানের ঘোষণা করেছেন।
দেখাগেছে এই পরিবারগুলি মেয়েদের বিবাহের সময় অনেক সময়ই অতন্ত্য চড়া সুদে টাকা ধার নিতে বাধ্য হন। এই অনুদান রূপশ্রী প্রকল্প নামে দেওয়া হবে যার লক্ষ্য হলো মেয়েদের বিবাহের সময় দরিদ্র পরিবার যে আর্থিক সমস্যার সুমুক্ষীন হন তা হ্রাস করা। এই প্রকল্পের জন্য ১৫০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে সরকার।

রূপশ্রী প্রকল্পের অধীনে বিয়ের দিন ঠিক হওয়ার পর ফর্ম পূরণ করতে হবে পাত্রীকে। বিয়ের ন্যূনতম ৩০ দিন আগে আবেদন করতে হবে। আয়ের শংসাপত্র, পাত্রীর বয়সের শংসাপত্র, পাত্রের সম্পর্কে তথ্য দিয়ে আবেদন করতে হবে। এরপর তথ্য খতিয়ে দেখে তবেই দেওয়া হবে এই টাকা।

১ এপ্রিল থেকে এই প্রকল্প কার্যকর হচ্ছে বলে বৈশাখ মাসে যাঁদের বিয়ে তাঁদের পরিবার আবেদন করার সময়সীমায় ছাড় পাবে। সেই ফর্ম যাচাই করে বিয়ের ৫ দিন আগে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে জমা পড়বে প্রাপ্য টাকা।পরিবারের বার্ষিক আয় ১.৫ লক্ষ টাকা বা তার কম এমন পরিবারের প্রাপ্তবয়স্ক তরুণীরা বিয়ে করলে এই প্রকল্পের অধীনে এককালীন ২৫ হাজার টাকা করে পাবেন।

লক্ষী ভান্ডার প্রকল্প :- মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায় রাজ্যের মধ্যে শুরু হয়েছে লক্ষী ভান্ডার প্রকল্পের কাজ কর্ম। যে সমস্ত মহিলারা সমাজে পিছিয়ে পড়ছে সেই সমস্ত মহিলাদেরকে সামনের সারিতে তুলে আনার জন্য মানবিক মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই চেষ্টা। এই প্রকল্পের মাধ্যমে রাজ্যের প্রতিটি মহিলাদেরকে ৫০০ টাকা এবং হাজার টাকা করে সরকারি অনুদান দেওয়া হবে প্রতি মাসে। যার ফলে সেই সমস্ত মহিলারা নিজের হাত খরচের নিজেরাই চালাতে পারবেন। দুয়ারে সরকারকে ক্যাম্প এ আপনারা এর জন্য আবেদন করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button