SBI এর থেকে প্রতিমাসে 18 লক্ষ টাকা পান ‘বিগ-বি’ অমিতাভ বচ্চন! আপনিও পেতে পারেন এই টাকা! জানুন কিভাবে।

নিজস্ব প্রতিবেদন:-বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে বহু বছর ধরে অধিকার এবং আধিপত্য বিস্তার করা একজন অভিনেতা হচ্ছে অমিতাভ বচ্চন। শুধুমাত্র হিন্দী অভিনয় জগতে নয় তার পাশাপাশি বাংলাতেও রয়েছে তার প্রভাব। কিন্তু আপনি কি জানেন যে ভারতের সবথেকে বড় রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক অর্থাৎ স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া প্রতিমাসে অমিতাভ বচ্চনকে দিচ্ছে বিপুল পরিমাণ অর্থ এবং এই ঘটনা নেট দুনিয়াতে আসা মাত্রই সৃষ্টি হয়েছে শোরগোল। কেন স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া অমিতাভ বচ্চনকে এত বিপুল পরিমাণ অর্থ প্রতিমাসে প্রদান করছে তার কারণ খুঁজতে গিয়ে বেরিয়ে এলো চাঞ্চল্যকর তথ্য।

সূত্র মারফত এমনটাই জানা যাচ্ছে যে অমিতাভ বচ্চন তার সম্পত্তি ১৫ বছরের জন্য লিজে দিয়েছে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া কে। এবং সেখান থেকেই প্রতিমাসে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া তরফ থেকে দিচ্ছেন এই বিপুল পরিমাণ অর্থ এবং এই অর্থের পরিমাণ নেহাত কম নয়। বর্তমানে প্রতি মাসে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া অমিতাভ বচ্চন কে ১৮.৯ লক্ষ টাকা দিচ্ছে।

সম্প্রতি সূত্র মারফৎ জানা গিয়েছে বিগ বি অমিতাভ বচ্চন স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়া বা এসবিআই-কে লিজ দিয়েছেন তার বিপুল পরিমাণ সম্পত্তি। খবর অনুযায়ী, তার Juhu Vile Park Development Scheme এর অন্তর্ভুক্ত বাড়ি “জলসা” এসবিআই-কে ভাড়া দিয়েছেন তিনি। এর আগেও বহুবার নিজের সম্পত্তি ব্যাংকের কাছে ভাড়া দিতে দেখা গিয়েছে অমিতাভ বচ্চনকে।

তবে চুক্তি অনুযায়ী এমনটা জানানো হচ্ছে যে প্রতি বছর ২৫ শতাংশ করে বৃদ্ধি পাবে এই ভাড়া ইতিমধ্যে প্রায় ২.২৫ কোটি টাকা প্রদান করেছে ব্যাংক। এই সম্পত্তি অমিতাভ বচ্চন ব্যাংককে ভাড়া দিয়েছেন ১৫ বছরের জন্য।প্রথম ৫ বছরের জন্য প্রতি মাসে এসবিআই-কে দিতে হবে ১৮.৯ লক্ষ টাকা, পরবর্তী ৫ বছরের জন্য ২৩.৬৩ লক্ষ টাকা এবং তার পরবর্তী ৫ বছরের জন্য ২৯.৫৩ লক্ষ টাকা।

২৮ শে সেপ্টেম্বর ২০২১ তারিখে এসবিআই -এর সঙ্গে এই চুক্তি স্বাক্ষর করেছেন অমিতাভ বচ্চন। চুক্তির শর্তানুযায়ী, ৩০ হাজার টাকার স্ট্যাম্প ডিউটি প্রদান করেছে এসবিআই এবং সেই সাথে ৩০ হাজার টাকা দিয়েছে রেজিস্ট্রেশন চার্জ হিসেবে। এর আগে এই বাড়ি ব্যবহার করতো সিটি ব্যাঙ্ক।যা ২০১৯ সাল পর্যন্ত ব্যবহার করেছিল সিটি ব্যাংক। জলসার “আম্মু বাংলো” এবং “বাতসা” -র সম্পত্তি ব্যবহার করতে পারবে সংশ্লিষ্ট ব্যাংক কর্তৃপক্ষ।

আরও পড়ুন

Back to top button