এসে গেছে ঘূ-র্ণিঝ-ড় “যশ”, পশ্চিমবাংলার যে যে জেলায় বেশি তা-ণ্ড-ব চা-লাতে পারে এই ঘূর্ণিঝ-ড়, রইলো সূচি!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- প্রকৃতির উপর নি-র্মম ভা-বে অ-ত্যাচার করার ফলে প্রকৃত একসময় তা আমাদেরকে ফিরিয়ে দেয় । ২০২০,২০২১ এই দুইটি সাল নিকৃষ্ট উদাহরণ হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে আমাদের কাছের । মানুষ হা-ড়ে হা-ড়ে টে-র পাচ্ছে যে আমরা যত উন্নত করে নি না কেন প্রকৃতির কাছে নিতান্ত একটি দুধের শিশু। গত কয়েক মাস আগে ২০ মে এপার বাংলা এবং ওপার বাংলার বিস্তীর্ণ অঞ্চলে ব্যা-পক ক্ষ-তি করেছে ‘আম্ফান’ । তার রে-শ কা-টিয়ে উঠতে না উঠতেই আরো একবার ঘূ-র্ণিঝ-ড়ের পূর্বাভাস দিল আবহাওয়া দপ্তর ।

লকডাউন এরপর যখন দেশে আনলক পর্ব শুরু হল তখন বিভিন্ন নিম্ন শ্রেণীর মানুষেরা নিজেদের ক্ষ-য়ক্ষ-তি হওয়া ব্যবসা আবার পুনরায় চালু করার জন্য শুরু করেছে স্বাভাবিক জীবন-যাপন আর ঠিক তার মধ্যেই খবর পাওয়া গেল আরো এক বছর ঘূ-র্ণিঝ-ড়ের। শেষ ঘূ-র্ণিঝ-র ‘নিসর্গ’ মুম্বাই এ আছড়ে পড়েছিল । আমরা দেখেছিলাম রীতিমতো মুম্বাইকে তো-লপা-ড় করে দিয়েছিল । তারপরে পশ্চিমবাংলার উপর দিয়ে বয়ে গেছে ‘আম্পান’। । ব্যা-পক ক্ষ-য়ক্ষ-তি করেছে এই ঝ-ড় যার প্রভাব এখন মাঝেসাজে নজরে পড়ে রাস্তায় বেরোলে ।

তারপর তারই মধ্যে আবার তামিলনাড়ু ও পুদুচেরি তে আ-ছড়ে প-ড়েছিল নিভার ।  পাশাপাশি ক্রমশ শ-ক্তি বা-ড়িয়ে ঘূ-র্ণিঝ-ড় নিভার । মহা ঘূ-র্ণিঝ-ড়ে পরিণত হয়েছিল । তামান্নাকুরআন এবং কারাইকালে মধ্য দিয়ে তামিলনাড়ু এবং পন্ডিচেরি পড়ার কথা ছিলো এই ঘূ-র্ণিঝ-ড় ‘নিভার’ এর । । সে সময় বাড়বে ঘূর্ণি ঝড়ের গতিবেগ ঘণ্টায় ১৪৫ কিলোমিটার ছিল । এরই মাঝে যখন মানুষ স্বাভাবিক জীবন-যাপন করতে শুরু করেছে সবে মাত্র তখন সে আরো একবার ব্যা-পক শ-ক্তিশা-লী ঘূ-র্ণিঝ-ড়ের আবির্ভাব দেখা গেল। এবং বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া এই নিম্নচাপ এর তৈরি হওয়া  এই ঘূ-র্ণিঝ-ড় বালাসর এবং দীঘার মধ্যবর্তী অংশে ল্যান্ড করতে চলেছে আগামী ২৬ তারিখ

এই ঘূর্ণিঝড় এবং এর ক্ষ-য়ক্ষ-তির পরিমাণ ‘আম্ফান’ এর তুলনায় অনেক বেশি মাত্রায় হতে চলেছে বলে জানাচ্ছে আবহাওয়াবিদরা । রাজ্য সরকার এবং তার সমস্ত রকম পরিস্থিতি মোকাবিলা করার জন্য তৈরি আছে ইতিমধ্যে উপকূলবর্তী অঞ্চলে থেকে মানুষদেরকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে উঁচু জায়গাতে তার পাশাপাশি মূলত এবারে ‘ঘূর্ণিঝড়’ আলাদা মাত্রা প্রভাব ফেলতে চলেছে জেলাগু-লিতে যেমন বাঁকুড়া কলকাতা হাওড়া হুগলি পশ্চিম বর্ধমান পূর্ব মেদিনীপুর মেদিনীপুর ব্যাপক পরিমাণে ক্ষ-য়ক্ষ-তির আশঙ্কা রাখছেন আবহাওয়া বিদরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button