‘দুয়ারে সরকার’ প্রকল্প আমার আইডিয়া ছিল’! অভিনেতা রুদ্রনীল ঘোষের দাবিতে শোরগোল রাজনৈতিক মহলে

নিজস্ব প্রতিবেদন: ২১ শের বিধানসভা নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়লাভের পিছনে রাজনৈতিক মহলের অনেকের মতেই প্রধান ভূমিকা ছিল ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশোরের। রাজনৈতিক মহলের ধারনা বিধানসভার আগে তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে সমস্ত পরিকল্পনায় সাজিয়েছিলেন প্রশান্ত কিশোর।

তেমনই ২১ শের বিধানসভার আগেই ‘দুয়ারে সরকার’ নামে একটি প্রকল্প চালু করেছিল রাজ্যের শাসক দল। যেই প্রকল্প চলছে এখনো। এই প্রকল্পের উদ্দেশ্য ছিল মানুষের সাহায্যের জন্য তাদের কাছে পৌঁছে যাওয়া। যেই কারনে কার্যত জনসাধারনের মধ্যে খুবই জনপ্রিয় হয়েছে এই প্রকল্প। তবে অনেকের মতেই এই প্রকল্প চালু করার পিছনেই প্রধান মস্তিস্ক ছিল প্রশান্ত কিশোর। এবার কার্যত সেই প্রকল্প নিয়েই বিতর্কিত মন্তব্য করে বসলেন রুদ্রনীল ঘোষ।

গত বিধানসভার আগেই তৃণমূল ছেড়ে গেরুয়া শিবিরে যোগ দিয়েছিলেন অভিনেতা রুদ্রনীল ঘোষ। যিনি একটা সময় একই ভাবে সিপিএম ছেড়ে তৃণমূলে এসেছিলেন। যেই কারনে বিজেপি যোগের পর সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলিং এর স্বীকার ও হয়েছিলেন তিনি। এবার সেই রুদ্রনীল ই রাজ্য সরকারের ‘দুয়ারে সরকার’ প্রকল্প নিয়ে বিস্ফোরক দাবী করলেন।

এদিন তিনি একটি ফেসবুক লাইভ করেছিলেন। যেখানে তাকে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলতে দেখা যায়। সেখানেই তিনি দাবী করেন রাজ্য সরকারের ‘দুয়ারে সরকার’ প্রকল্পটি তার মস্তিস্কপ্রসূত। তিনি লাইভে বলেন তিনিই প্রথম প্রশান্ত কিশোর কে এই আইডিয়া টি দিয়েছিলেন। যেকোন রাজনৈতিক দলের জন্য ভোটে জিততে অসম্ভব কাজে লাগবে বলেও জানিয়ে ছিলেন তিনি।

পরে প্রশান্ত কিশোর কে কটাক্ষ করে বলেন, ও আমার আইডিয়া শুনেই দুয়ারে সরকার প্রকল্পটিকে নিজের মস্তিস্কপ্রসূত বলে চালিয়ে দিয়েছে। রুদ্রনীলের এহেন মন্তব্যে কার্যত দুই ভাগে ভাগ হয়েছে সাধারন মানুষ। বেশীরভাগ জনেরই দাবী এতদিন তিনি শাসক দলকে তোপ দাগলেও এই বিষয়ে আগে কিছু বলেননি। আচমকায় তার এই দাবী হয়তো সত্যি নয় বলেই তাদের বিশ্বাস। অনেককে আবার রুদ্রনীল কে সাপোর্ট করতেও দেখা গেছে।

আরও পড়ুন

Back to top button