দারুন সুখবর! প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার আওতায় এবার নতুন ঘর পাবেন সকলে! ঘোষণা কেন্দ্রের।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা তে আরো একটি বড় সুবিধা যোগ করা হলো অবিলম্বে সেই সুবিধার সুযোগ নিন । বিশাল জনসংখ্যা বিশিষ্ট এই দেশে এমন অনেক মানুষ রয়েছে যারা দরিদ্র সীমার নিচে বসবাস করেন। দেশে দারিদ্রতা কমিয়ে আনার জন্য সরকার প্রতিজ্ঞাবদ্ধ এবং প্রতিনিয়ত লাগাতার কাজ করে চলেছে এই বিষয়টির উপর। সেই মতো ২০১৪ সালের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির শপথ গ্রহণ করার পর দেশের দরিদ্র সীমা কমিয়ে আনার জন্য অঙ্গীকারবদ্ধ হয়েছেন।

আমাদের দেশে এমন অনেক মানুষ রয়েছে যাদের মাথার ওপর ছাদ নেই । বৃষ্টি বাদলের দিনে বা প্রখর রোদে তাদেরকে খুঁজতে হয় নিরাপদ আশ্রয় ।এবার থেকে সেই চিন্তার মুক্তি হতে চলেছে ।কারণ প্রধানমন্ত্রী একটি প্রকল্প রচনা করেছেন যে প্রকল্প সম্পর্কে আমি আপনি প্রত্যেকেই কম-বেশি জানি এবং এই প্রকল্পটির নাম প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা। প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার মাধ্যমে দারিদ্র সীমার নিচে বসবাসকারী মানুষেরা পাকাপোক্ত বাড়ি তৈরি করতে পারবেন সরকার তাদেরকে সাহায্য করবে।

শুধু আপনার নিজস্ব একটা জমি বা বাড়ি তৈরি করার জায়গা থাকতে হবে এবং সেই জায়গা দেখিয়ে সরকারের কাছ থেকে পাকা বাড়ি ঢাকা আপনি আদায় করতে পারেন। গ্রামীণ ক্ষেত্রে এই টাকার পরিমাণ আলাদা এবং শহরাঞ্চলে টাকার পরিমাণ আলাদা। শিল্প সংস্থা সিআইআই সরকারের কাছে প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা পুনরায় চালু করার দাবি জানিয়েছে। সিআইআই দাবি করেছে যে, এই যোজনায় জীবন বীমার সুবিধা বাধ্যতামূলক করা উচিত। এরই সাথে, প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা ঋণের সুবিধাভোগীদের বীমা সুবিধা প্রদানেরও দাবি করা হয়েছে।

সরকার যদি সিআইআই-এর এই দাবি মেনে নেয় এবং প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা ২০২১ তালিকা জীবন বীমার সঙ্গে পুনরায় চালু করা হয়, তাহলে এটি দেশবাসীর জন্য একটি বড় ঘোষণা হবে। এখন পর্যন্ত এই স্কিমে ঋণ গ্রহণকারী ব্যক্তির জন্য কোনও ধরনের কভারের সুবিধা নেই। ঋণের সঙ্গে জড়িত বীমা পরিকল্পনারও কোনও ব্যবস্থা নেই। সিআইআই জানিয়েছে যদি পিএম আবাস যোজনার ঋণের সাথে বীমার সুবিধা পান মানুষ, তাহলে প্রতিকূল পরিস্থিতিতে বাড়ির খরচও চলতে থাকবে এবং ঘর নির্মাণের কাজ বন্ধ হবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button