আপনার সন্তানও কি জ্বরে ভুগছে? এই 3 টি লক্ষণ দেখলেই অবিলম্বে চলে যান ডাক্তারের কাছে!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-পুজোর আগেই অজানা জ্বরে রীতিমতো চিন্তিত হয়ে পড়েছে সমস্ত শিশুর অভিভাবকরা । তার পাশাপাশি চিন্তিত হয়ে পড়েছে চিকিৎসকেরা ।এই মুহূর্তে বারবার আবহাওয়ার পরিবর্তন হওয়ার জন্য অনেকের মধ্যে সর্দি কাশি জ্বর ইত্যাদি উপসর্গগুলো দেখা যাচ্ছে ।

সেগুলো একপ্রকার বলতে পারেন ভাইরাল ফ্লু কিন্তু ব্যাকটেরিয়ার নিমোনিয়া হচ্ছে কিনা সেটা কিভাবে বুঝবেন? বুঝার বেশ কয়েকটি উপায় রয়েছে এবং লক্ষণ রয়েছে । কাজেই এই সমস্ত লক্ষণগুলি যদি আপনার শিশুর শরীরে দেখা যায় তাহলে বিন্দুমাত্র দেরি না করে অতি অবশ্যই চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যান ।

যে সমস্ত বাচ্চাগুলি ছয় মাসের কম অর্থাৎ কথা বলতে পারে না এখনো পর্যন্ত শুধুমাত্র মায়ের দুধ খায় তাদের উপর বিশেষ নজর রাখতে হবে । যেহেতু তারা কিছু বাইরে প্রকাশ করতে পারছে না তাই অতি অবশ্যই চোখে চোখে রাখতে হবে তাদেরকে । তার পাশাপাশি মায়ের যদি কোন কারনে সর্দি হয় তাহলে অবশ্যই ডবল মাস্ক পড়ে শিশুর সামনে আসতে হবে । চিন্তার কোন কারণ নেই মাতৃদুগ্ধ থেকে কখনো কোন ভাইরাস ছড়ায় না ।।

যদি আপনার শিশুর গায়ে ব্যথা সর্দি হাঁচি এবং শ্বাসকষ্ট থাকে তাহলে বিন্দুমাত্র দেরি না করে তাকে অতি অবশ্যই চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যান । কারণ এই সমস্ত লক্ষণগুলি ভাইরাল ফ্লুর হলেও শ্বাসকষ্ট কিন্তু অতিরিক্ত ভাবে চিন্তা বাড়িয়ে দেয় ব্যাকটেরিয়াল নিউমোনিয়া হওয়ার ক্ষেত্রে । তাই এই সমস্ত লক্ষণগুলো দেখা দিলে অতি অবশ্যই আপনার শিশুকে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যান এবং সঠিকভাবে চিকিৎসা করেন ।

দিন দুই থেকে জ্বর৷ ১০২ থেকে ১০৩ ডিগ্রি পর্যন্ত জ্বর৷ সাথে নাক দিয়ে কন্টিনিউ জল পড়া৷ হাঁচি ও কাশি৷ আবার কিছু ক্ষেত্রে বমির উপসর্গও থাকছে৷ কিন্তু এগুলো সব ভাইরাল ফ্লু এর উপসর্গ। আরেক দিকে ব্যাকটেরিয়াল নিউমোনিয়া হলে হাঁচি অথবা নাক দিয়ে জল পড়ে না৷ গা ব্যথা হয় সঙ্গে বুকে সর্দি, ঘরঘর কাশি হয়৷ ব্যাকটেরিয়াল নিউমোনিয়াতে খুব বেশি মাত্রায় জ্বর থাকে৷

বাড়িতে থাকা কালিন অতি অবশ্য আপনি আপনার শিশুর উপর নজর রাখুন । যদি কোনো কারণে নাক বন্ধ হয়ে যায় তাহলে সে ক্ষেত্রে স্যালাইন ড্রপ দিতে পারেন । এতে অনেকটা সুবিধা হবে ।তবে যদি বয়স একটু বেশি হয় তাহলে গারগেল বা ভেপার নিতে হবে। এতে অনেকটা স্বস্তি মেলে ।প্রাথমিক চিকিৎসা বাড়িতে শুরু করলে ভবিষ্যতে তেমন কোনো সমস্যা হবে না বলেই ধরে নেওয়া যাচ্ছে ।।

আরও পড়ুন

Back to top button