ফের মুখোমুখি মিমি-ঋতাভরী, পুজোর টক্করে একে অপরকে কি বললেন দুই অভিনেত্রী!

নিজস্ব প্রতিবেদন: ঋতাভরী চক্রবর্তী ও মিমি চক্রবর্তী বাংলা ইন্ডাস্ট্রির জনপ্রিয় দুই তারকা। এই দুই অভিনেত্রীর মধ্যে মিল রয়েছে যথেষ্ট। এই দুই নায়িকাই নিজ প্রতিভার দ্বারা দর্শকদের মনে চিরস্থায়ী জায়গায় তৈরি করে নিয়েছিলেন। তাৎক্ষণিক অর্থে তাদের কারুরই কোনো গডফাদার ছিল না। এমনকি এই দুই অভিনেত্রী তাঁদের অভিনয় জীবন শুরু করেছিলেন ছোটপর্দার মাধ্যমে। অর্থাৎ ধারাবাহিক জগতে প্রবেশের মাধ্যমেই এই দুই অভিনেত্রীর অভিনয় জগতে পদার্পণ।

শুধু তাই নয় স্টার জলসার ধারাবাহিক করার মাধ্যমে মানুষ তাঁদের চিনতে শুরু করে। ঋতাভরী চক্রবর্তীকে দেখা গেছিল স্টার জলসার ‘ওগো বধূ সুন্দরী’- এর ললিতার চরিত্রে। আর মিমি চক্রবর্তীকে দেখা যায় স্টার জলসার ‘গানের ওপারেস’ ধারাবাহিকের কুপের চরিত্রে। এই দুই চরিত্রে তাদের জীবনের মাইলস্টোন বলা চলে।

ঘটনাচক্রে আবারও মুখোমুখি হতে চলেছেন ঋতাভরী চক্রবর্তী ও মিমি চক্রবর্তী। মহাপঞ্চমীর দিন একসঙ্গেই মুক্তি পেতে চলেছে মিমি অভিনীত ফিল্ম ‘বাজি’ ও ঋতাভরী অভিনীত ফিল্ম ‘এফআইআর’ সিনেমা। দুটি সিনেমা নিয়েই যথেষ্ট আশাবাদী দুজনে। কারণ এমনিতেই করোনা আবহে অনেক দিন তেমন ফিল্মের কাজ হয়নি। আবার দুজনে নিজের অন্যান্য কাজ নিয়ে বেশ ব্যস্তও ছিলেন। যেমন মিমি চক্রবর্তী রাজনীতি নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন।

আর ঋতাভরী চক্রবর্তী বেশ অনেকদিন অসুস্থ ছিলেন। তাঁর শরীরে একাধিক অপরেশন হয়েছে। এখন অবশ্য ঋতাভরী চক্রবর্তীর ক্যারিয়ারের সুসময়। কারণ অনুরাগ কাশ‍্যপের প্রযোজনায় একটি হিন্দি ফিল্মে অভিনয় করতে চলেছেন ঋতাভরী। আবার ‘মায়া মৃগয়া’ নামে আরও একটি ফিল্মের শুটিং শুরু হতে চলেছে ঋতাভরীর। এছাড়াও অংশুমান প্রত্যুষের একটি রোমান্টিক ফিল্মেও কাজ করবেন ঋতাভরী।

যাই হোক ঋতাভরী চক্রবর্তী সম্প্রতি নিজের ও মিমির কয়েকটি পুরোনো ছবি শেয়ার করেছেন তাঁর ইনস্টাগ্রামে। এইভাবেই পুরানো দিনের স্মৃতিচারণ করেছেন নায়িকা। তবে শুধু ছবিই পোস্ট করেননি, এর সাথে সাথে মিমিকে ‘বাজি’ সিনেমা রিলিজের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। ঋতাভরীর শেয়ার করা ছবির মধ্যে একটি হল তাঁদের দুজনের কেরিয়ার শুরুর সময়ের ছবি। আরেকটি ছবি হলো তাঁদের বর্তমান সময়ের ছবি।

এখনকার ছবিটিতে ঋতাভরীকে কমলা রঙের লেহেঙ্গা ও তার সাথে মানানসই কুন্দন জুয়েলারিতে দেখা গেছে। আর মিমির পরনে রয়েছে কালো রঙের লেহেঙ্গা ও মানানসই কুন্দনের গয়না। এক্ষেত্রেও মিল। পোষাক ও সাজের ধরনেও যথেষ্ট সাদৃশ্য রয়েছে। তবে পুরোনো ছবিগুলো দেখে ভালো ভাবেই বোঝা যাচ্ছে যে পুরোনো দিনের সাথে এখনকার এই দুই নায়িকার কতো পার্থক্য। দুজনেই যথেষ্ট লড়াই করে,কঠিন সময় পেরিয়ে তবেই সফলতা পেয়েছেন। ঋতাভরীর ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করা ছবির কমেন্ট বক্সে মিমি ঋতাভরীকে সমর্থন জানিয়ে লিখেছেন যে পরিশ্রম ও সততার বিকল্প হয় না। আবার দুজন দুজনকেই শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন

Back to top button