মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে বাংলায় এই পাঁচ জেলায় টানা তিন দিন হতে চলেছে তু-মুল বৃষ্টি। সতর্কতা জারি আবহাওয়া দপ্তরের!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- গতবছর ঠিক এই সময়ে রাজ্যের বু-কে আ-ছড়ে প-ড়েছিল ‘আম্ফান’ এবং সে আমফানের ক্ষ-য়ক্ষ-তির পরিমাণ এখনো পর্যন্ত আন্দাজ করা যেতে পারে নি । বিপুল পরিমাণ ক্ষ-য়ক্ষ-তি হয়েছিল। তার চিত্র ফুটে উঠে মাঝেমধ্যে। তার রেশ কা-টিয়ে উঠতে না উঠতেই পুনরায় ঘূ-র্ণিঝ-ড় যশ উপকূলবর্তী মানুষের জীবনকে একেবারে ধু-লিস্যাৎ ক-রে দি-ল এমনটা আর বলার অপেক্ষা রাখে না তবে এর প্র-ভাব কে-টে যা-ওয়ার পর আরো একবার ঘূ-র্ণিঝ-ড়ের সম্ভাবনার আভাস দিল আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর।

বছরের পর বছর ধরে আমরা প্রকৃতির উপর অ-ত্যা-চার চা-লিয়ে গে-ছি । গাছ কে-টেছি নদীপথ ভরাট করে দিয়েছি এবং তার ফলস্বরূপ আজকে মানবসভ্যতা বি-পদের মু-খে । একের পর এক ম-হামা-রী ঘূ-র্ণিঝ-ড় আমাদেরকে আ-ক্রমণ করে চলেছে প্রতিনিয়ত । এবং কোথাও যেন জনজীবন বি-পর্যস্ত হয়ে পড়েছে এই সমস্ত প্রাকৃতিক বি-পর্যয়ের কারণে । ইতিমধ্যেই রাজ্যে আম্ফানের প্র-ভাব পেরোতে না পেরোতেই যশ এর প্র-ভাব এসে পড়েছে এবং তার প্রভাবে রীতিমতো ল-ন্ডভ-ন্ড হয়ে গেছে রাজ্যের বিভিন্ন অংশ । আম্ফান এর তুলনায় এর অনেক গুন বেশী ক্ষ-য়ক্ষ-তি হয়েছে ।

কিন্তু সেই যশ এর প্র-ভাব কা-টতে না কাটতেই ফের আরও একটি ঘূ-র্ণিঝ-ড়ের আবহাওয়া অফিস । ইয়স এবং আমফানের ক্ষ-য়ক্ষ-তিতে রীতিমতো না-জেহাল উপকূলবর্তী অঞ্চলে মানুষগু-লি। কিভাবে আবার আগের মতন জনজীবন ফিরবে তা ভেবে পাচ্ছেন না তারা তার উপর আবার এই মা-রণব্যা-ধি করোনা সব মিলিয়ে যেন বেঁচে থাকাটাই ক-ঠিন হয়ে উঠছে প্রতিনিয়ত প্রতি মুহূর্তে এবং এই অবস্থাতে নতুন করে পুনরায় আরো এক বিধ্বংসী ঘূ-র্ণিঝ-ড়ের আ-ঘাত দিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া এবং এই ঘূ-র্ণিঝ-ড়ের নাম গুলাবো। এই ঝ-ড়ের নাম দিয়েছে পাকিস্তান।

এই ঘূ-র্ণিঝ-ড় গুলাব থেকে ভারতে রক্ষা পাবে কিনা তা আগে থেকে বলা সম্ভব নয় । কারণ এই ঘূ-র্ণিঝ-ড় কবে উৎ-পত্তি হবে বা কবে সৃষ্টি হবে সেটি জানা যায়নি । আরব সাগর বঙ্গপোসাগর ভারত মহাসাগরে সৃষ্টি হতে পারে ঘূ-র্ণিঝ-ড় থাইল্যান্ড মালদ্বীপ বাংলাদেশ পাকিস্তান ভারতের ,বিহার উড়িষ্যা ও পশ্চিমবঙ্গ এর একটি অংশে আছে পড়তে পারে এই ঘূ-র্ণিঝ-ড়। তবে এখনো পর্যন্ত জানানো হয়নি কবে এর প্র-ভাব প-ড়তে চ-লেছে ইতিমধ্যেই তার জেরে শুরু হয়েছে নতুন করে আ-তঙ্ক ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button