আগামী 4/5 দিন টানা বৃষ্টিতে ভাসতে চলেছে গোটা পশ্চিমবঙ্গের চার জেলা, অগ্রিম সর্তকতা আবহাওয়া দপ্তরের।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- প্রতিদিন যে সমস্ত ঘটনাবলি সম্পর্কে আমাদের আপডেট থাকা দরকার তার মধ্যে অন্যতম একটি ঘটনা হলো আবহাওয়া । আপনি বাইরে কোথাও যদি চাকরি করতে চান বা কাজ করতে চান বা যে কোন কিছুর জন্যই যদি ঘরের বাইরে বের হন তাহলে কিন্তু অতি অবশ্যই আপনাকে সেই দিনের আবহাওয়া সম্পর্কে জেনে রাখা দরকার । কারণ রাস্তাঘাটে যেকোনো ধরনের আবহাওয়া সম্মুখিন হতে পারেন আপনি । সেই পরিস্থিতি কাটিয়ে ওঠার জন্য এটা জানা অত্যন্ত জরুরি । তার পাশাপাশি এখন যেহেতু বর্ষাকাল তাই কখন ঝ-মঝ-মিয়ে বৃ-ষ্টি না-মবে তা বলা মুশকিল । সে অর্থে প্রতিনিয়ত জানা দরকার । আবহাওয়ার রিপোর্ট কি বলছে বর্তমানে এখন এই আবহাওয়া রিপোর্ট পশ্চিমবঙ্গের ।

কেরলের বর্ষার পাশাপাশি ইতিমধ্যে পশ্চিমবঙ্গেও বর্ষা ঢুকে গেছে সম্পূর্ণ রকম ভাবে । আমরা দেখেছিলাম যে বর্ষার আগে যে বি-ক্ষিপ্ত বৃষ্টির সম্ভাবনার কথা বলেছিল আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর বৃষ্টি হয়েছিল বিভিন্ন জেলাতে । তবে এখন কি খবর পাওয়া যাচ্ছে ?কতদিন থাকবে এই বৃষ্টির প্রভাব? এই প্রশ্ন থাকছে রাজ্য বাসীদের মনে । সেই অর্থে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে এই বৃষ্টির প্র-ভাব আর কতদিন চলতে পারে ।এবং এই খবর উঠে আসার পর রীতিমতো দু-শ্চিন্তা হচ্ছে অনেকের ।কারণ আগের বৃষ্টির ফলে অনেক জায়গায় এখনও জল জমে আছে ।

অনেক জায়গার রাস্তাঘাট জমে যাচ্ছে ট্র্যাফিক জ্যাম । সম্প্রতি আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে যে এই বৃষ্টি লম্বা ইনিংসের জন্য এসেছে অর্থাৎ এত সহজে বৃষ্টি ছাড়বে না । রাজ্যের বিভিন্ন জেলাতে বৃদ্ধ মাঝারি থেকে অতি ভারী বৃষ্টি কথা জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর । আমরা দেখেছিলাম এর মধ্যে ছিল পশ্চিম বর্ধমান পূর্ব মেদিনীপুর পশ্চিম মেদিনীপুর নদীয়া সহ বেশ কয়েকটি জেলা তার পাশাপাশি উত্তরবঙ্গে ছিল দার্জিলিং কালিম্পং এই সমস্ত জেলাগু-লি । তবে এবার আলিপুর আবহাওয়া দত্ত জানাচ্ছে যে এই বর্ষার প্রভাব অর্থাৎ এক নাগাড়ে বৃষ্টির প্রভাব আগামী শনিবার দিন পর্যন্ত থাকবে এবং আগামী দিনে এর প্র-ভাব আরো বৃদ্ধি পেতে পারেন ।

ঝড়ো হাওয়া তার সাথে ব-জ্র-বি-দ্যুৎ সহ বৃষ্টিপাত দেখা যাবে প্রায় সবকটি জেলাতে। আলিপুর আবহা দপ্তর জানিয়েছে যে নি-ম্নচা-পের কথা জানিয়েছিল সেটি এই মুহূর্তে পশ্চিমবঙ্গের গাঙ্গেয় পুকুর এবং তা সংলগ্ন এলাকাতে অবস্থান করছে । এবং এটি ধীরে ধীরে ঝাড়খণ্ডের দিকে অগ্রসর হচ্ছে । তার পাশাপাশি মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নি-ষেধা-জ্ঞা জারি করা হয়েছে । বেশ কয়েকটি রাজ্যে জারি করা হয়েছে কমলা সতর্কবার্তা। প্রশাসন তৎপর রয়েছে এই সমস্ত পরিস্থিতি মোকাবেলা করার জন্য । বঙ্গোপসাগরের জলীয়বাষ্প প্রচুর পরিমাণে প্রবেশ করছে রাজ্যে । যার ফলে বৃষ্টির প্র-ভাব থাকবে আরো কিছুদিন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button