বৃষ্টিপাতের রেড এলার্ট! হুগলি সহ এই চার জেলায় চলবে একনাগাড়ে বৃষ্টি, জানালো আবহাওয়া দপ্তর!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- প্রতিনিয়ত এই বৃষ্টি চোখ রাঙাচ্ছে রাজ্যের উপর । প্রথম ইনিংস সম্পন্ন করার পর দ্বিতীয় ইনিংসে জো-রক-দমে নেমে পড়েছে বর্ষা এমনটা আমরা আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর মাধ্যমে জানতে পারছি । বর্ষার আগমন ঘটেছিল এই রাজ্যে মূলত একটি নি-ম্নচা-পের হাত ধরে ।কিন্তু তার প্রভাব এতোখানি বেশি হবে তা আমরা কেউ কল্পনাও করতে পারেনি । একনাগাড়ে একটানা বৃষ্টির ফলে রীতিমতো রাস্তায় জল জমে রয়েছে ।বন্ধ হয়ে গেছে যানবাহন চলাচল পরিষেবা।

কিন্তু দক্ষিণবঙ্গে অবস্থা কিছুটা স্থিতিশীল হলও উত্তরবঙ্গ কিন্তু প্রতিনিয়ত বাড়াচ্ছে ভাবনা । নদীর জল ক্রমশ বেড়েই চলেছে জা-রি করা হচ্ছে লাল সতর্কবার্তা। উত্তরবঙ্গের অবস্থা দেখে রীতিমতো চিন্তার ভাঁজ বাড়ছে সকলের মধ্যে । কারণ আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে কোন সময় পাহাড়ি অঞ্চলের ধ-স না-মতে পা-রে । কাজেই সেখানকার মানুষদের কে সতর্ক করা এবং অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে ইতিমধ্যে । জলস্তর প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে ।

আলিপুর আওয়া দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে ২০০ মিলিমিটার পর্যন্ত বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে এই সমস্ত অঞ্চল জুড়ে তার পাশাপাশি দার্জিলিং জলপাইগুড়ি আলিপুরদুয়ার কুচবিহার ইত্যাদি জেলাগু-লিতেও আজ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। বঙ্গোপসাগরে নি-ম্নচা-প চলে গেল এখন বাংলাদেশ এবং পাকিস্তান , রাজস্থানে থেকে নিম্নচাপ সৃষ্টি হয়েছে যার ফলে প্রচুর পরিমাণে জলীয়বাষ্প প্রবেশ করছে এই রাজ্যে । তার পাশাপাশি মৌসুমী অক্ষ রেখার মধ্যবর্তী অবস্থান করার জন্য এই ধরনের বৃষ্টিপাত ক্রমশ শ-ক্তি বা-ড়াচ্ছে বলে অনুমান করছে আবহাওয়াবিদরা ।

শুক্রবার এবং শনিবার গোটা উত্তরবঙ্গ জুড়েই অতি ভারী বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস থাকার কারণে লাল সতর্কতা জা-রি করা হয়েছে। অন্যদিকে দক্ষিণবঙ্গে বীরভূম, পশ্চিম বর্ধমান, নদিয়া, মুর্শিদাবাদ এবং কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলাতেও ব-জ্রবি-দ্যুৎ-সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। কলকাতা শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে ৩৪ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে। সকালের দিকে ভা-রি ব-জ্রবি-দ্যুৎ সহ ঝ-ড় এবং রাতের কয়েকবার ব-জ্রবৃ-ষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button