কলকাতা সহ এই চার জেলায় ব’জ্রবি’দ্যুৎ সহ ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভবনা, এই জেলাগুলিতে সতর্কতা জা’রি করল মৌসম বিভাগ!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- এখনি শেষ হচ্ছে না বর্ষার প্রভাব দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করতে ইতিমধ্যে মৌসুমী বায়ুর হাত ধরে মাঠে নেমে পড়তে চলেছে বর্ষা ফেরার একবার বা-নভা-সি হবে গোটা শহর জুড়ে । নির্দিষ্ট সময়ে নির্দিষ্ট জিনিসের দরকার পড়ে ঠিক কথাই । কিন্তু সেটা মাত্রারিক্ত হলে তার বি-রক্তের অন্যতম কারণ হয়ে দাঁড়ায় যেমন বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গের অবস্থা । কারণ পরপর দুটি বি-ধ্বংসী ঝ-ড় পেরিয়ে যাওয়ার পরও মানুষ অপেক্ষারত ছিল যে কবে আসবে বর্ষা । করলে বর্ষা প্রবেশ করার বহুদিন পর রাজ্যে বর্ষা প্রবেশ করেছিল ।

কিন্তু একনাগাড়ে একটানা বৃষ্টিপাত রীতিমতো বি-রক্তের কা-রণ হয়ে উঠেছে রাজ্যবাসীর । কারণ রাস্তাঘাটের জমে রয়েছে এখন অব্দি জল অনেক জায়গায় আবার বানভাসি মতো ঘটনা দেখা গেছে । সে ক্ষেত্রে সাধারণ মানুষের মনে প্রশ্ন থাকতে পারছে যে কবে কমবে এই বৃষ্টি । কবে সূর্যের আলো দেখা মিলবে ভালো ভাবে । সেই উত্তর দিলো সম্প্রতি আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর । হাওয়া অফিস জানিয়েছে, একটি ঘূ-র্ণাব-র্ত অবস্থান করছে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ এবং সংলগ্ন এলাকার ওপর। আবার অন্যদিকে বঙ্গোপসাগর থেকে প্রচুর পরিমাণে জলীয়বাষ্প প্রবেশ করছে রাজ্যে।

যার ফলে আজও রাজ্যের বিস্তীর্ণ এলাকায় ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস। তবে উত্তরবঙ্গে বৃষ্টির পরিমাণ বাড়বে বলেও খবর।এর পাশাপাশি আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে যে রবিবারে পর থেকে তাপমাত্রা পরিবর্তন ঘটবে কিন্তু হেরফের দেখা যাবে ব্যা-পক পরিমাণে । অর্থাৎ প্রতিনিয়ত পাল্টে থাকবে তাপমাত্রা । কিন্তু বৃষ্টির পরিমাণ কমতে থাকবে যখন সম্পূর্ণ রকম ভাবে নিম্নচাপ উত্তর প্রদেশ এবং বিহারের দিকে অগ্রসর হবে এবং পশ্চিমবঙ্গের সীমানা ছাড়িয়ে যাবে তখন কিন্তু বৃষ্টির পরিমাণ কমবে।

উত্তরবঙ্গের জেলাগু-লিতে যেমন কালিংপং জলপাইগুড়ি দার্জিলিং আলিপুরদুয়ার কুচবিহার ইত্যাদি অঞ্চলগুলিতে বাড়ি থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনার কথা জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর। টানা পাঁচ দিন কোনো পরিবর্তন হবে না আবহাওয়ার । এর পাশাপাশি আপনি যদি দক্ষিণের জেলা গুলির উপর একটু নজর রাখেন তাহলে সে ক্ষেত্রে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে যে আগামী ২৪ জুন থেকে পুনরায় শুরু হতে চলেছে পুরুলিয়া বাঁকুড়া পূর্ব বর্ধমান পশ্চিম বর্ধমানের বৃষ্টির প্রভাব । এবং এই বৃষ্টির প্র-ভাব পরপর তিনদিন অর্থাৎ তিন দিন এর প্র-ভাব থাকবে গোটা জেলা জুড়ে । থাকবে ঝ-ড়ো হা’ওয়া এবং ব-জ্রবি-দ্যুৎ ।

দক্ষিণবঙ্গের অন্যান্য জেলার যেগু-লি বাংলাদেশ সংলগ্ন যে সমস্ত জেলা গু-লি রয়েছে যেমন নদিয়া দক্ষিণ ২৪ পরগনা মালদা মুর্শিদাবাদের জেলাগু-লিতে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি কথা জানিয়েছে এবং সে বৃষ্টি শুরু হবে আগামী ২৬ শে জুন থেকে । সমুদ্র উপকূলবর্তী অঞ্চলে মৎস্য জীবীদের মাছ ধরতে যেতে নিষেধাজ্ঞা জা-রি করেছে প্রশাসন কারণ এই সময় সমুদ্র আরো উত্তাল হবে । মূলত গভীর নি-ম্নচা-প এবং তার পাশাপাশি মৌসুমী বায়ুর জন্য এই ধরনের বর্ষার বারবার ফিরে আসার ঘটনা লক্ষ্য করা যাচ্ছে এমনটা জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button