মেয়েদের এই 4 টি খিদে কোনো দিনই মেটেনা! দেখুন কোন কাজ গুলি সবসময় করা উচিত নির্লজ্জ ভাবে!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আমাদের এই জীবনে প্রতিনিয়ত এমন কিছু ধরনের ঘটনা ঘটে চলেছে বলেই হয়তো আমাদের জীবনে না ঘটলেই ভালো হতো । সমস্ত ঘটনা গুলি সম্পর্কে আমরা প্রস্তুত থাকে না । কোনো সময়ে এমনটা অনেক সময় দেখা যায় যে নিজেদের জিনিসপত্র ব্যবহার করছে অন্যজন । কিন্তু লজ্জার কারনে আমরা সে সমস্ত জিনিস গুলি তাদেরকে বলতে পারেন না । পুরান শাস্ত্র মতে চারটি জিনিসের কথা উল্লেখ রয়েছে যে বিষয়ে কখনো লজ্জা করা উচিত নয় । এই সমস্ত বিষয় যদি আপনি লজ্জা করেন তাহলে জীবনে কোনদিন সফল হতে পারবেন না । সফলতার বাধা হয়ে দাঁড়াবে একমাত্র আপনার লজ্জা । তাই লজ্জা ত্যাগ করে এই সমস্ত জিনিস গু-লি করতে থাকুন ।আসুন জেনে নিই কি সেই জিনিস গু-লি।

স্বামী স্ত্রীর ভালোবাসা :- আমাদের যুগে এখন প্রত্যেকে বন্ধু হয়ে গেছে এবং বন্ধুত্বের পরে প্রেম ভালোবাসা করে বিয়ে হচ্ছে । কিন্তু আগেকার যুগে এমন অনেকেই ছিল যাতে যারা একে অপরের মুখ না দেখেই বিয়ে করে ফেলেছে । তাই একটু লজ্জা বোধ কাজ করছে তাদের মধ্যে । কিন্তু যদি আপনি স্বামী-স্ত্রীর ভালোবাসা কে শক্ত ও মজবুত করতে চান তাহলে অতি অবশ্যই তার কাছ থেকে ভালবাসার চেয়ে নিন এবং স-হবা-সের সময় কোন রকম কোন লজ্জা না করাই উচিত নইলে তৃতীয় ব্যক্তির আগমনে ঘটেছে জীবনে ।

খাওয়া-দাওয়া:- শাস্ত্র বলছে কোনো জায়গায় খেতে কখনোই কোনো রকম লজ্জা করতে নেই । কারণ যদি আপনি লজ্জা করে খান তাহলে আপনার পেট অভুক্ত থাকবে এবং অভুক্ত থাকা অবস্থাতে আপনাকে দিন কাটতে হবে । এবং আপনি যদি খাওয়া-দাওয়া তো লজ্জা করেন তাতে বাইরের লোকের কিছু যায় আসে না । তাই লজ্জা কে ত্যাগ করে মনের আনন্দে পছন্দ মতন জিনিস খেয়ে যান ।

গুরুর থেকে শিক্ষা :- চাণক্য এমনটা বলেছিলেন যে কখনোই গুরুর কাছ থেকে শিক্ষা নেওয়ার সময় লজ্জা বোধ করবেন না । কারণ আপনি যদি লজ্জা বোধ করেন তাহলে গুরুর থেকে শিক্ষা সম্পূর্ণ ও অসম্পূর্ণ থেকে যাবে । তাই শিক্ষা গ্রহণের সময় কোন রকম কোন লজ্জা উচিত নয়। সেটা শিক্ষাগুরু হতে পারে বা দীক্ষাগুরু হতে পারে।

ধার দেওয়া । অর্থ :- শাস্ত্র মতে এমনটা জানানো হচ্ছে যে আপনি যদি কাউকে দুঃসময়ে কারো পাশে থেকে তাকে অর্থ ধার দিয়ে থাকেন এবং নির্দিষ্ট সময় পর যদি ওই ব্যক্তি আপনার অর্থ ফেরত না দেয় তাহলে অতি অবশ্যই সেই অর্থ চেয়ে নেয়া উচিত । কারণ আপনি যদি আপনার টাকা চাইতে লজ্জা বোধ করেন তাহলে কিন্তু জীবনে কোনদিন ধনী হতে পারবেন না ।

আরও পড়ুন

Back to top button