করোনা আবহে অসমে ম্লান দুর্গোৎসব, ডিব্রুগড়ে নিষিদ্ধ মূর্তিপূজা!

করোনা আবহে অসমে ম্লান দুর্গোৎসব, ডিব্রুগড়ে নিষিদ্ধ মূর্তিপূজা!
ছবিঃ গুগল

করোনার যা দাপট দিন দিন বাড়ছে তাতে অসীম সরকার অত্যন্ত ভয় বহু হয়ে উঠেছে   ব্যাপক হারে বেড়ে চলছে সংক্রমণ সবরকম চেষ্টার পরেও সংক্রমণ কমানো যাচ্ছে না প্রথমদিকে নিয়ন্ত্রণের থাকলেও এখন মৃত্যুর হার বেড়ে চলেছে ।।

এই অবস্থায় বাঙালির সবথেকে বড় উৎসব দুর্গাপূজা না হওয়ার সম্ভাবনা আছে আসামে কারণ দুর্গাপূজায় জনসমাগম তো হবেই আর সেটা একদম ভালো না করোনাভাইরাস সব সময় অপেক্ষা করে থাকে লোকজন কখন এক জায়গায় একত্রিত হবে এ বিষয়ে অসীম সরকার কবি উপন্যাসের দ্বন্দ্ব নিয়ে নিল করণা থেকে বাঁচার জন্য এবার শারদীয় উৎসব বন্ধ থাকবে এমনটাই বলেছেন সরকার।

গত দিনের বৈঠকে ডিব্রুগড় এর জেলাশাসক পল্লব গোপালঝাড় বৈঠকে বসেন পুজো উদ্যোগ কর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে আলোচনা হয় পূজা নিয়ে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে যে মূর্তিপূজার বদলে বৈদিক রীতি মেনে ঘট পূজা করা হবে যাতে জনসমাগম না হয় তবে পুজো তো আর বন্ধ করা যায়না পুজো হবেই কিন্তু কোন ভিড় হট্টগোল সেখানে তৈরি হবে না এমনটাই তাদের বৈঠকে ঠিক হলো তিনি উল্লেখ করেছেন যে মন্দির কর্তৃপক্ষদের সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে কাজ করতে হবে স্যানিটাইজার এবং মাস্ক ব্যবহার করা অত্যন্ত জরুরি রাস্তায় থাকবে কড়া পাহারায় যাতে বিরক্ত বোধ তৈরি না হয় যে সমস্ত ক্লাব গুলি আছে ক্লাবগুলোকে অনুরোধ করা হয়েছে তারা যেন তাদের ক্লাবের মধ্যে ছোট করেই পূজা সেটা নয় যেন রাস্তাঘাটে কোন প্যান্ডেল তৈরি না হয় এমনটা হলে কড়া শাস্তির পরিকল্পনা নেবে সরকার

বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব হলো দুর্গাপূজা সেটা বাংলা ছাড়া অন্য কোথাও কতটা জমজমাট নয় তবুও অসমে যেহেতু কিছুটা বাঙালি লোক বসবাস করে তাই অসমে দুর্গাপুজো খুবই জনপ্রিয় রাজধানী গোয়াহাটি তিনসুকিয়া এই তিন জায়গায় দুর্গাপূজা অত্যন্ত ধুমধাম করে মানানো হয় তবে এবার সব দিক বিচার করে সিদ্ধান্ত এটাই নেওয়া হল যে এবছর পূজা হবে কিন্তু কোন প্যান্ডেল হবে না আর সমস্ত ক্লাবের ভেতরে পুজো করে নিতে হবে
অসমে দের লক্ষের বেশি মানুষ এই মহামারীর শিকার তাদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে 500 জনের এইজন্যই অসীম সরকার চায় না আর বাড়তি ঝুঁকি নিতে তারা স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে প্যান্ডেল করে পূজা করা যাবে না যদি তা হয় তাহলে সরকার তাদের উপর কঠোর শাস্তি দেবে

কিন্তু এবারে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে সেই আনন্দে ভাঁটা পড়েছে। এখনও পর্যন্ত অসমে এই মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন দেড় লক্ষেরও বেশি মানুষ। আর মৃত্যু হয়েছে ৫০০ জনের।

অসমের স্বাস্থ্যমন্ত্রী স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিয়েছে যদিও অসম এই বছর ভালো ভাবে তাকায় তাহলে পরের বছর ধুমধাম করে পালন করা হবে দুর্গাপূজা কারণ মানুষের বেঁচে থাকাটা বেশি প্রয়োজন টেনে এবছর সমস্ত মানুষকে অনুরোধ করেছেন সরকারের সাথ দেওয়ার জন্য