ভিড়ের মধ্যে শরীর ছুঁতে চেয়েছিল ১৫ বছরের ছেলে, উচিৎ শিক্ষা দেন সুস্মিতা সেন

কলকাতা হান্ট ডেস্কঃ নারীর ক্ষমতায়ন প্রসঙ্গে বরাবরই সবর হয়ে থেকেছেন মিস ইউনিভার্স খ্যাতিপ্রাপ্ত সুস্মিতা সেন। কিন্তু এই অভিনেত্রী ও এক সময় বাদ যাননি পুরুষের অবাঞ্ছিত হাতের স্পর্শ থেকে। নারীদের মধ্যে আট থেকে আশি বয়স যাই হোক না কেন পুরুষের নোংরা স্পর্শ পাননি এমন মহিলা মনে হয় খুঁজলে মাত্র কয়েকটা সংখ্যা পাওয়া যাবে। মুম্বাইয়ের নারী সুরক্ষা নিয়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে চিপ গেস্ট হয়ে গিয়েছিলেন সুস্মিতা সেন আর সেখানে গিয়েই নিজের যৌন হেনস্থার কথা জনসমক্ষে জানান।

আরও খবরঃ- Koel Mallick: মায়ের হাত ধরে ব্যাডমিন্টন শিখতে চায় ছোট্ট কবীর, অন্তরঙ্গ ভিডিও শেয়ার কোয়েলের

আজকাল মি টু মুভমেন্ট যতই জোরালো হোক না কেন মহিলাদের উপর অত্যাচার কিন্তু একটুও কম হয়নি। এইগুলি দেখার পরও থেমে যাননি বলিউডের প্রথম শ্রেণীর অভিনেত্রীরা। এই বিষয়ে বেশ কিছু বক্তব্য রাখেন সুস্মিতা সেন। নিজের যৌন হেনস্থার সাথে কোনো অভিনেতার সম্পর্ক নেই বলে জানিয়েছেন সুস্মিতা। এই যৌন হেনস্থার সাথে যুক্ত ছিলেন যে বালকটি তাঁর বয়স মাত্র 15 বছর।

মুম্বাইয়ের এক পুরস্কার বিতরণী মঞ্চে সুস্মিতা যখন প্রবেশ করছেন হঠাৎই তিনি অনুভব করেন তাঁর শরীরের অবাঞ্চিত স্পর্শকে। খারাপ স্পর্শ ভেবে বুঝতে পেরেই ভিরের মধ্যেই চেপে ধরেছিলেন সেই ব্যক্তির হাত। ভিড় থেকে সেই দোষী কে সরিয়ে আনার পর অবাক হয়েছেন অভিনেত্রী নিজেই তিনি দেখেন যে তিনি যার হাত ধরেছেন সে একটি ১৫ বছরের নিতান্ত বালক।

ওই বালকটিকে তখন সুস্মিতা সেন পাশে নিয়ে গিয়ে বোঝান। অভিনেত্রী বলেছিলেন যে তিনি চাইলে ভিড়ের মধ্যে চিৎকার করতে পারতেন কিন্তু চিৎকার করলে ছেলেটির পুরো জীবন নষ্ট হয়ে যেত। তাই অভিনেত্রী তাঁকে সুযোগ দিয়েছিলেন। অভিনেত্রী ওই বালকটিকে তাঁর কাছে ক্ষমা চাইতে বলেন। পরিস্থিতি খারাপ বুঝে অবশেষে ওই বালকটি অভিনেত্রীর কাছে ক্ষমাও চেয়েছিল।

অবশেষে অভিনেত্রী বলেন যে সমস্ত মেয়েরা যৌন হেনস্থার শিকার হয়েছেন তাদের উচিত দোষীদেরকে সহবত শেখানো। যৌন হেনস্থা হয়েও এই অভিনেত্রী ভয় না পেয়ে যৌন হেনস্থার বিরুদ্ধে সবর হয়ে দোষী কে উচিত শিক্ষা দিয়েছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button