দুই সন্তানকে নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্য, ট্রোলের বিরুদ্ধে মোক্ষম জবাব দিলেন করিনা কাপুর খান

কলকাতা হান্ট ডেস্কঃ হিন্দি চলচ্চিত্র জগতের অন্যতম অভিনেত্রী ছিলেন করিনা কাপুর। তিনি বহু বিখ্যাত সিনেমায় কাজ করেছেন। শুধু তাই নয় তার নীলাভ মনি, সুন্দর মুখশ্রী দর্শকদের মনে দীর্ঘস্হায়ী জায়গা করে নিয়েছে। তাঁর বহু সিনেমা অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে বা নানাভাবে পুরস্কৃত হয়েছে। কিছু কিছু সিনেমায় তাঁর মতো করে চুলের খোঁপা, সানগ্লাস, শাড়ি পরার ধরণ রপ্ত করতে চাইতেন দর্শকরা। তাঁর স্বামীর নাম সেওফালি খান, যিনি একজন জনপ্রিয় অভিনেতা।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Kareena Kapoor Khan (@kareenakapoorkhan)

লেটেস্ট খবরঃ- এক চিমটে কর্পূরে মিটবে সাংসারিক কলহ থেকে অর্থনৈতিক সংকট সবকিছুই, দেখুন বিস্তারিত

এই দু’ই তারকার এখন ভরা সংসার। দুই সন্তানের অভিভাবক তারা দুজন। তবে নামেই বাঁধলো বিতর্ক। ইংলিশ কবি Shakespeare বলেছিলেন “What is in name?” অর্থাৎ “নামে কি এসে যায়? ” তবুও নাম নিয়েই বাঁধে যতো গন্ডগোল। তাদের প্রথম সন্তানের নাম ছিল তৈমুর খান। আবার দ্বিতীয় সন্তানের নাম রেখেছেন জাহাঙ্গীর আলি খান। করিনা কাপুরের মাতৃত্বকালীন সময়ের সমস্যা, ভালোলাগা, খারাপ লাগা সমস্ত কিছু নিয়েই লেখা ‘দা প্রেগনেন্সি বাইবেল’ -থেকেই জানা গেছিল দ্বিতীয় সন্তানের নাম।

আরও খবরঃ- ফুলশয্যার রাতে তিথির হাতে সপাটে থাপ্পড় খেল রুদ্রিক, ভাইরাল ভিডিও

তবে দুই ছেলের এমন নাম রাখা কেন? তৈমুর তো একসময় অত্যাচারী ছিলেন, তাহলে সেই নামে ছেলের নাম রাখার কি যুক্তি? আবার দ্বিতীয় সন্তানের নামও তো অন্যকিছু রাখাই যেত। এইসব প্রশ্নেই বিদ্ধ করছেন দর্শকরা। তবে করিনা কাপুরও সপাটে জবাব দিয়েছেন। তাঁর বক্তব্য তিনি যখন জানতে পারেন তৈমুর নামের মানে ধারালো তরবারি, তখন থেকেই এই নাম রাখার ইচ্ছা ছিল তাঁর। তিনি মানুষের কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য দেখে হতবাক। শুধুমাত্র নামের জন্য দুটি ছোট প্রাণকে এমনভাবে বিদ্ধ করা যথোপযুক্ত নয় বলেই মত প্রকাশ করেছেন করিনা কাপুর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button