আসছে ‘খড়কুটো’-র হিন্দি রিমেক, সৌজন্য-গুনগুনের বদলে কে! রইলো ভিডিও

সন্ধ্যা ৭.৩০ বাজলেই ধারাবাহিক প্রিয় দর্শকরা টিভি খুলে স্টার জলসার পর্দায় চোখ রাখেন। আর স্টার জলসায় ৭.৩০ মানেই খরকুটো। এই খরকুটো ধারাবাহিকটি বরাবরই বাংলা ধারাবাহিকগুলোর প্রতিযোগিতায় এগিয়ে। আর টি আর পি-এর দিক থেকেও বেশ এগিয়ে থাকে এই ধারাবাহিক। পারিবারিক সম্পর্কগুলোর ভালো দিকগুলিকে তুলে ধরা হয় এই ধারাবাহিকের মাধ্যমে। এই ধারাবাহিকের প্রত্যেকটি চরিত্র নিঁখুত অভিনয় দ্বারা দর্শকদের মনে চিরস্থায়ী আসন তৈরি করে নিতে পেরেছে অচিরেই। এই ধারাবাহিকের জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পাওয়ার অন্যতম কারণ হলো পরিবারের সকল চরিত্রের একে অপরের সাথে সমঝোতামূলক সম্পর্ক। দর্শকরা সবচেয়ে বেশি উপভোগ করেন এই বিষয়টি। পরিবারে সকলে মিলে একসাথে থাকার মধ্যে যে নিখাদ আনন্দ রয়েছে, তা উপভোগ করেন দর্শকরা। কখনো জেঠু-জেঠির বিয়ে, কখনো বাড়ির বাচ্চা হওয়ার আনন্দে সকলের আনন্দে মাতোয়ারা হয়ে নৃত্য পরিবেশন, অদ্ভুত রকমের সঙ্গীত পরিবেশন সবই হয়ে থাকে এই ধারাবাহিকে। এই ধারাবাহিকে দেখানো বাবিনের পরিবারে আনন্দ-উল্লাসের খামতি নেই।

এবারে এই ধারাবাহিকের হিন্দি ও তামিল রিমেক হতে চলেছে। এই ধারাবাহিক এবার দেখা যাবে স্টার প্লাসের পর্দায়। হিন্দি রিমেকটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘কভি কভি ইত্তেফাক সে’। এখানে সৌজন্যর চরিত্রে অভিনয় করবেন চলেছেন মনন যোশী এবং গুনগুনের চরিত্রে অভিনয় করছেন ইয়েশা রুঘানি। বাংলার মতো ‘খড়কুটো’-র মতো হিন্দি ও তামিল রিমেকের চিত্রনাট্যকার লীনা গঙ্গোপাধ্যায়। কিন্তু এই ধারাবাহিক পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন বলিউড ও তামিল ইন্ডাস্ট্রির দু’জন নামকরা পরিচালক। সবথেকে বড়ো কথা হলো দুটি রিমেকেই স্হানীয় সংস্থার সাথে যৌথভাবে প্রযোজনা করতে চলেছে ‘ম্যাজিক মোমেন্টস’। ‘ম্যাজিক মোমেন্টস’-এর কর্ণধার শৈবাল গঙ্গোপাধ্যায় জানিয়েছেন, তারা এর আগেও ‘শ্রীময়ী’, ‘কুসুম দোলা’, ‘ইষ্টিকুটুম’ প্রভৃতির রিমেক করেছেন। এবারে খরকুটোর রিমেক করতে চলেছেন সকলে। তবে এই ধারাবাহিকে বৃহৎ কোনো পরিবর্তন আনা হবে না।

খরকুটো বরাবরই বাংলার দর্শকদের ভীষণ পছন্দের। এবারে হিন্দি ও তামিল দর্শকদেরও প্রিয় হয়ে উঠবে এই ধারাবাহিক। চিত্রনাট্যকার লীনা গাঙ্গুলী জানিয়েছিলেন যে ‘খড়কুটো’-র হিন্দি রিমেক করার জন্য তাঁদের কিছুদিন মুম্বইতে গিয়ে থাকতে হবে। তবে লীনা গাঙ্গুলী বিষয়টি নিয়ে বেশ উচ্ছ্বসিত। ইতিমধ্যেই সামনে এসেছে ‘খড়কুটো’-র হিন্দি রিমেক ‘কভি কভি ইত্তেফাক সে’-এর প্রথম ঝলক। এই ধারাবাহিকের ট্রেলারে দেখা যাচ্ছে, সম্বন্ধ করে বিয়ে ও জুয়া সমার্থক কিনা এই সম্পর্কে প্রশ্ন রাখা হয়েছে। দর্শকরা আশা করতেই পারেন যে বাংলার মতোই হিন্দি ও তামিলে জনপ্রিয় হবে এই ধারাবাহিক। কয়েক মাস আগে মিঠাইয়ের হিন্দি ও তামিল রিমেক দেখা গেছিল, এবারে খরকুটো। বাংলা ধারাবাহিকের জনপ্রিয়তা নিয়ে তাহলে আর কোনো প্রশ্নই তোলা যায় না নতুন করে। কি বলেন আপনারা?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button