ইচ্ছাশক্তি থাকলে কিনা হতে পারে বাড়িতেই বাপ বেটা মিলে বানিয়ে ফেলল সাইকেল গাড়ি

father and son made cycle
Img: Google
Advertisement

জীবনে থেমে গিয়ে কোন কাজ বন্ধ করে দেওয়া কে জীবন বলে না জীবন তাকেই বলে যখন আপনি সেটি করার জন্য আপনার সর্বোচ্চ টি দেন এবং সেই কাজটি করে ফেলেন চেষ্টা চালিয়ে যেতেই হবে আর চেষ্টা চালিয়ে গিয়ে সেটি অর্জন করার নামই হল জীবন

এমন এমন একটি ঘটনার সাক্ষী হলো আমাদের দেশ যে ঘটনাটি প্রমাণ করে দিল ইচ্ছাশক্তি থাকলে সমস্ত কিছুই হতে পারে আমাদের মধ্যে ধৈর্য এবং নিষ্ঠা দুটি থাকার প্রয়োজন কোনো কিছু অর্জন করতে গেলে আমাদের মধ্যে সমস্ত গুণ থাকা দরকার তবে এই ঘটনাটি নতুন করে বাঁচার স্বপ্ন দেখায় এবং পাশাপাশি এক অদ্ভুত ভালোলাগা তৈরি করে ।

আরও পড়ুনঃ দৈনন্দিন জীবনে চলার পথে এই চারটি জিনিস কখনো কারো সাথে শেয়ার করবেন না।

ঘটনাটি ঘটেছে পাঞ্জাবের লুধিয়ানা ক্লাস এইট এর একটি ছেলে এই লকডাউনে তার বুদ্ধি খাটিয়ে তৈরি করে ফেললো নতুন ধরনের এক সাইকেল যেহেতু ছেলেটি গরীব এবং সে যে বিদ্যালয়ে পড়াশোনা করে সেখানে যেতে তার বহু সময় কেটে যায় তাই জন্য বাড়ি থেকে সাইকেলের বায়না করছিল কিন্তু আর্থিক অবস্থা এতটাই খারাপ যে তাকে সাইকেল কিনে দিতে পারেনি ।

অর্থ না হতে পারে কিন্তু বর্ধিত আছে মাথায় প্রচুর বাপ ছেলে মিলে হাল ছাড়তে নারাজ বাবাকে সঙ্গে নিয়েই ঘরেই তৈরি করে ফেলল নতুন ধরনের একটি সাইকেল তবে এটিকে সাইকেল থেকে বলা যায় না এটি সাইকেল এবং স্কুটার এর সঙ্গে সং মিশ্রন এক কথায় বলা যায় সাইকেল গাড়ি গাড়িটার সামনের দিকটা স্কুটার এর মত দেখতে এবং পিছন দিকটা সাইকেলের মতো ।।

আরও পড়ুনঃ কিং খান পরিবারের মান সম্মান মাটিতে মেশাচ্ছে, মেয়ে সুহানা

নিজের হাতে গড়া সাইকেল বানিয়ে অত্যন্ত আনন্দিত এবং উৎফুল্ল হয়ে উঠেছে ছেলেটি সাইকেল নিয়ে স্থানীয় এলাকায় শুধু ঘুরে বেড়াচ্ছে এবং সেই ভিডিও যখনই ভাইরাল হয়ে গেল তখনই জানা গেল এই সাইকেল গাড়ি আসল রহস্য ক্লাস এইট এর পড়ে তার মাথায় এই ধরনের বুদ্ধি এসেছে তা অনেকেই এখনো পর্যন্ত ভাবতে পারছে না 70 হাজারের বেশি মানুষ পছন্দ করে ফেলেছে এই ভিডিওটি ছেলেটি আমাদের সবাইকে বুঝিয়ে দিলো ইচ্ছাশক্তি থাকলে এমন কোন কাজ নেই যে করা যাবেনা ইচ্ছাশক্তি থাকলে যেকোনো কাজ নিমেষেই সেরে ফেলা যায়

Advertisement