ফের তুমুল গুলির লড়াই জম্মু-কাশ্মীরের সোপিয়ানে

নিজস্ব প্রতিবেদন:- দিন কয়েক আগেই সেনা-জঙ্গি লড়াইয়ে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল জম্মু-কাশ্মীর। সম্প্রতি আবারও জম্মু-কাশ্মীরের সোপিয়ান এলাকায় তুমুল গুলির লড়াই চলতে দেখা গেল আজ সারাদিন ধরে। প্রসঙ্গত এদিন বৃহস্পতিবার দক্ষিণ কাশ্মীরের সোপিয়ান জেলায় জম্মু-কাশ্মীরের পুলিশ এবং সেনাবাহিনীর বিশেষ উদ্যোগে তল্লাশি চালানো হয়। আগে থেকেই এই এলাকায় জঙ্গিদের তৎপরতার খোঁজ মিলেছিল। এদিন যৌথ উদ্যোগে তল্লাশি চালানোর পর হঠাৎ করেই এক জঙ্গি গোটা বাহিনীর উপর গুলি চালাতে শুরু করে। এমতাবস্থায় বাধ্য হয়ে পুলিশ এবং সেনাবাহিনীর তরফেও গুলির লড়াই শুরু হয়। গোটা এলাকায় সাথে সাথেই তৎপরতার সাথে ঘিরে ফেলে সৈন্যবাহিনী। আমাদের এই প্রতিবেদনটি প্রকাশিত হওয়ার সময় পর্যন্ত গুলির লড়াই চলছে বলেই খবর পাওয়া গিয়েছিল। যদিও এখনো পর্যন্ত কোন মৃত্যুর খবর সামনে আসেনি।আপাতত সমগ্র এলাকায় নাকাবন্দি করে তল্লাশি অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ এবং সেনাবাহিনীর টিম। কতজন জঙ্গি উপস্থিত আছে তা না জানা গেলেও আশঙ্কা করা হচ্ছে আশেপাশে আরও কিছু দল উপস্থিত থাকতে পারে। তাদের খোঁজ চালানোর উদ্দেশ্যেই কড়া নিরাপত্তার জারি করা হয়েছে সমগ্র অঞ্চল জুড়ে।

আরও পড়ুনঃ বিজেপির নির্দেশে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা অনেক কিছু করতে বাধ্য হচ্ছেন, ওদের কোনও দোষ নেই, জানালেন মমতা

প্রসঙ্গত দিন কয়েক আগেই জম্মু কাশ্মীরের পুলওয়ামায় সেনা এবং জঙ্গিদের মধ্যে গুলির লড়াই শুরু হয়েছিল। একইভাবে সেখানে সূত্র মাধ্যমে খবর পেয়ে উপস্থিত হয়েছিল সেনাবাহিনী। তবে গুলি চালানোর কিছুক্ষণ পরেই
সেনাবাহিনীর তরফের জঙ্গিদের আত্মসমর্পণ করার সুযোগ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু নিজেদের স্বভাববশত সেই সুযোগ অস্বীকার করে দেন তারা। রাতভর লড়াই চলার পর সকালে 3 জঙ্গির মৃত্যুর খবর পাওয়া যায় এই লড়াইতে। তাদের পরিবারগুলিকেও জেরার জন্য গ্রেফতার করা হয় জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের তরফে।প্রসঙ্গত বিগত কিছু মাস ধরেই জম্মু-কাশ্মীরের বিস্তীর্ণ অঞ্চলজুড়ে জঙ্গি সংগঠনগুলোর সক্রিয়তা বেড়েই চলেছে। দিন কয়েক আগেই প্রকাশ্য বাজারে এক ব্যবসায়ীর একমাত্র ছেলেকে গুলিবিদ্ধ করে আহত করে জঙ্গিরা।গুরুতর আহত অবস্থায় সেই যুবককে হাসপাতালে ভর্তি করা হলে দিন তিনেক পর মারা যান তিনি।