ফুলশয্যার রাতে সব পুরুষই এই সাতটি জিনিস আশা করে থাকেন তার স্ত্রী তরফ থেকে

ফুলশয্যার রাতে সব পুরুষই এই সাতটি জিনিস আশা করে থাকেন তার স্ত্রী তরফ থেকে
ফুলশয্যার রাতে সব পুরুষই এই সাতটি জিনিস আশা করে থাকেন তার স্ত্রী তরফ থেকে

বাংলা খবর ডেস্ক: বিয়ের পর প্রথম রাতটি হলো ফুলশয্যার রাত এবং প্রত্যেক দম্পতির জীবনের এটি হল একটি গুরুত্বপূর্ণ রাত। কারণ দম্পতিরা জীবনে প্রথমবার একে অপরের সাথে রাত কাটান এই দিন। এই রাত নিয়ে প্রত্যেকেরই কিছু না কিছু স্বপ্ন বা ইচ্ছা থাকে।

নারী অনেক আশা নিয়ে শ্বশুর বাড়িতে চলে যান স্বামীর জীবনে কিন্তু একজন পুরুষ স্বামী হিসেবে কি কি আশা করেন তার স্ত্রী থেকে? এটাই আজকের আলোচনার বিষয়। প্রত্যেক পুরুষ সাতটি বিষয় আশা করেন তা নিজের স্ত্রীর তরফ থেকে। জেনে নিন সেই সাতটি বিষয়।

আরও পড়ুনঃ সম্পর্কে জড়ালে যেসব অভ্যাস বাদ দিতে হবে, জানেন কি সেগুলো

১. স্ত্রীকে যেন অপসরার মতো সুন্দরী লাগে: অধিকাংশ মানুষ জীবনে একবারই বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। তাই তার কাছে এই রাত বারবার ফিরে আসে না সুতরাং সব পুরুষই এই রাতে তার স্ত্রীকে স্বপ্নকন্যা রূপে দেখতে চান।

আরও পড়ুনঃ জীবন বদলে দেওয়ার ৪ উপায়, সকল ব্যর্থতা পিছনে এগিয়ে যেতে জেনে নিন এখনই এই উপায় গুলি

২. ভার্জিন : এখনো পর্যন্ত অধিকাংশ পুরুষই আশা করেন যাতে তার স্ত্রী ভার্জিন হয়। অর্থাৎ তিনিই হবেন সেই মহিলার জীবনের প্রথম পুরুষ যার সাথে সে শারীরিক সম্পর্ক তৈরি করবে।

৩. লাজুক ব্যবহার : কথায় আছে ‘লজ্জা নারীর ভূষণ’ এবং এই কথাটি ফুলশয্যার রাতে সবথেকে বেশি প্রাধান্য পায়। বিয়ে দেখেশুনে হোক বা প্রেম করে সব পুরুষই চায়, এই বিশেষ রাতে তার স্ত্রী যেন একটু লজ্জা পায় তবেই তারা ধরা দিতে পারবেন তাদের প্রেমের বন্ধনে।

আরও পড়ুনঃ নতুন সংসারে কীভাবে নিজেকে মানিয়ে নেবেন? রইলো ৭ টিপস

৪. সমৃদ্ধ জীবনের আশ্বাস : দুজনের নতুন জীবন শুরু হওয়ার এটিই প্রথম রাত তাই এই রাত্রি সত্যিই ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ। জীবনে একসঙ্গে চলার প্রতিশ্রুতি ও আশ্বাস দেওয়ার আদর্শ সময় এই রাত।

৫. শ্বশুরবাড়ির প্রার্থী নিয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ : বিয়েতে কে কি দিলো? আপনি কতোটা কি পেলেন? তা নিয়ে হতাশ বা ক্ষোভ না রেখে, হাসিমুখে সেগুলি নিয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করুন। এতে স্বামীর চোখে আপনার সম্মান ও ভক্তি দুটোই বাড়বে।

আরও পড়ুনঃ দীর্ঘ দিনের সম্পর্কে বিচ্ছেদ! এর পিছনে সাধারণ কে দায়ী থাকে? নারী নাকি পুরুষ?

৬. নিজের প্রশংসা : নিজের প্রশংসা শুনতে কে না ভালোবাসে? সব পুরুষেরাই তার স্ত্রীর মুখে নিজের প্রশংসা শুনতে সব থেকে বেশি পছন্দ করেন। সব পুরুষেরই প্রথম রাতে এই প্রত্যাশা রাখে।

৭. নিজের দায়িত্ব স্বামীর হাতে তুলে দেওয়া : এটা সেই বিশেষ রাত যখন থেকে স্ত্রী নিজেকে তার স্বামীর জীবনে অর্পণ করেন। নিজের সমস্ত দায়-দায়িত্ব চোখ বুজে ছেড়ে দেন স্বামীর হাতে। আপনি স্বাধীনভাবে থাকলেও সব পুরুষই চায় আপনি তার একটু হলেও কথা শুনে চলুন এবং তার প্রতি বিশ্বাস ও ভরসা রাখুন।

আরও পড়ুনঃ