ফের দেশে উদ্ধার ‘গুপ্তধন’, মাটি খুঁড়তেই মিলল সেই ‘গুপ্তধন’

ফের মিলল গুপ্তধন উন্নায়
ছবিঃ গুগল
Advertisement

আবারও খবর ছড়ালো উন্নাওকে ঘিরে। তবে এবার পুরোপুরি অন্য বিষয়ে। গতকাল উন্নাও থেকে উদ্ধার হয়েছে প্রায় 158 বছর পুরনো মাটির তলায় থাকা গুপ্তধন। মাটি খুড়তে গিয়ে বেশ অনেকটা নিচে একটি মাটির পাত্র ভর্তি রুপো তামার মুদ্রা পাওয়া যায়।

এই গুপ্তধন উদ্ধার হওয়ার পরেই স্থানীয় পুলিশের কাছে খবর পৌঁছায় এবং ঘটনাস্থলে তারা খুব দ্রুত হাজির হয়। উদ্ধার হওয়া সেই সমস্ত মুদ্রাগুলিকে তারা এসডিএম অফিসে নিয়ে যায় এবং সেখান থেকে পুরোপুরি সিল করে ডিএম অফিসে পাঠিয়ে দেয় বলে যানা যায়। বেশিরভাগ গ্রামবাসীরাই বলেন, বহুকাল আগে কেউ হয়তো এই মুদ্রা গুলি লুকিয়ে রেখে গিয়েছিল।

সূত্রের খবর, গ্রামে সৌচালয় নির্মাণের জন্য কাজ চলছিল গ্রাম পঞ্চায়েত থেকে। শ্রমিকরা যথারীতি কাজ করতে করতে হঠাৎ তাদের বেলচাটা একটি মাটির পাত্রে আঘাত করে এবং জোরে আওয়াজ হতেই তারা তৎক্ষণাৎ জায়গাটি পরিস্কার করে মাটির পাত্রটিকে উদ্ধার করে। এবং তারা মাটির পাত্র ভর্তি রুপো ও তামা বেশ কিছু মুদ্রা দেখতে পায়। তারা বুঝতে পারে যে রুপো তামার কয়েন গুলি বহু পুরনো। তখনই গ্রামের লোকেরা স্থানীয় থানায় খবর দেন এবং স্থানীয় থানার ও.সি. রাজেশ এসে সেই মুদ্রা গুলিকে কে সিল করে ডি.এম অফিসে পাঠিয়ে দেন।

এর আগেও বেশ কিছুবার শোনা গেছে যে উন্নায় প্রচুর মূল্যবান খনিজ দ্রব্য জমা রয়েছে। এসডিএম রাজেন্দ্র কুমার জানিয়েছেন হাজার ১৮৬২ সাল থেকে হাজার ১৯১৯ সালের ১৭ টি রুপার মুদ্রা পাওয়া গেছে এবং এছাড়া পাওয়া গেছে ২৮৭টি তামার মুদ্রা। তবে তামার মুদ্রা গুলো ঠিক কতটা পুরনো তাই এখনো শনাক্ত করা যায়নি এটি আপাতত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট অফিসে পাঠানো হয়েছে সেখান থেকে প্রত্নতত্ত্ব বিভাগে পাঠানো হবে এগুলি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার জন্য।

Advertisement