ঠিক কতো টাকা খরছ হচ্ছে রাম মন্দির নির্মাণে? জানতে হলে ক্লিক করুন

how much cost for the ram Mandir
ছবি সুত্রঃ গুগুল
Advertisement

বহু প্রতিক্ষার অবসান। 5 ই আগস্ট বুধবার দুপুর 12:30 মিনিটে অযোধ্যায় ভূমি পূজার মূল অনুষ্ঠান হবে। সূত্রের খবর 2:30 মিনিটের মধ্যেই সম্পন্ন হবে মূল অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবে স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে একই মঞ্চে দেখা যাবে রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের প্রধান মোহন ভাগবত, উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ‌ এবং রাজ্যপাল আনন্দিবেন পাতেল। 175 জনকে আমন্ত্রণ করা হয়েছে। করোনার জেরেই ভিড় এড়াতে বেশিরভাগ কাউকেই আমন্ত্রণ করা হয়নি।

আরও পড়ুনঃ অযোধ্যায় কাটাবেন প্রায় তিন ঘণ্টা, দেখে নিন মোদীর আজকের কর্মসূচি

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী 40 কেজির রুপোর ইট স্থাপন করবেন।তবে পূর্বে মন্দির তৈরীর যে খসড়া করা হয়েছিল তা এবার আমূল বদলে আরো বড় আকারে তৈরি হবে মন্দির। গত বছরের 9 নভেম্বর দেশের সর্বোচ্চ আদালতের তরফে বির্তকিত জমিতে রাম মন্দির নির্মাণের রায় দেওয়া হয়। তারপরেই জোরকদমে শুরু হচ্ছে রাম মন্দির নির্মাণ। 2024 সালে হোলির দিন দর্শনার্থীদের জন্য মন্দির খুলে দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে।42 মাসের মধ্যে মন্দির নির্মাণ করতে চায় রাম মন্দির ট্রাস্ট। বিশ্বের বৃহত্তম মন্দিরের চূড়ান্ত নকশা তৈরি। 5 ই আগস্ট ভূমি পুজোর পরের দিন থেকে অযোধ্যা মন্দির তৈরীর কাজ শুরু হচ্ছে।

how muxh cost Ram Mandir
ছবি সুত্রঃ গুগুল
  • সাড়ে তিন বছরে মন্দিরের কাজ শেষ করার পরিকল্পনা রয়েছে।
  • ভূমি পুজা 5ই আগস্ট 2020।
  • নির্মাণকাজ শুরু 6 আগস্ট 2020।
  • কাজ শেষের লক্ষ্যমাত্রা 31 জানুয়ারি 2024 ‌। বাড়তি এক মাস সময় হাতে রাখা হয়েছে।

মন্দিরের নকশা তৈরি করেছে গুজরাটের সোমপুরা পরিবার।সম্পুরা পরিবার 15 প্রজন্ম ধরেই মন্দিরের নকশা তৈরির কাজে জড়িত রয়েছে। 77 বছরের চন্দ্রকান্ত সোমপুরা জানিয়েছেন নাগারা স্থাপত্যের উপর ভিত্তি করেই মন্দিরের নকশা তৈরি করেছেন। এটি অনেকটা সোমনাথ মন্দিরের আদলে তৈরি হবে বলে সোমপুরা পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ ধেয়ে আসছে বড়ো বিপদ জানালো আবহাওয়া দপ্তর

মন্দিরের দৈর্ঘ্য প্রস্থ উচ্চতা যথাক্রমে 360, 235, 161 ফুট হবে। পুরো মন্দিরে 366 টি পিলার থাকবে। গর্ভগৃহ হবে অষ্টভূজ আকারের। পাঁচটি ছোট চূড়া থাকবে বলে জানা গিয়েছে। রাজস্থানের গোলাপি পাথরের গায়ে ফুটিয়ে তোলা হবে অপূর্ব সব কারুকাজ। রামায়ণের গল্প।মন্দিরের মূর্তি থাকবে রাম ,সীতা ,লক্ষণ হনুমান ও গণেশের। নতুন ছকের মন্দিরের বালি পাথরের পরিমাণ হবে 6 লক্ষ কিউবিক ফুট। যা আগে নির্ধারিত হয়েছিল তিন লক্ষ কিউবিক ফুট।

মন্দির তৈরীর বাজেট ধরা হয়েছে কমপক্ষে 300 কোটি টাকা।তবে মন্দির সংলগ্ন আশেপাশে স্থানজুড়ে উন্নয়নমূলক কাজ চালাতে গেলে 1000 কোটি টাকার কাছাকাছি পৌঁছে যেতে পারে বলে জানা গিয়েছে। মন্দির তৈরীর ক্ষেত্রে দেশজুড়ে আর্থিক সাহায্য তোলা হবে। এর জন্য চলতি বছরের 25 নভেম্বর থেকে 25 শে ডিসেম্বর দেশের প্রায় 10 কোটি পরিবারের কাছে পৌঁছে যাবে।

মন্দির কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো, সরাসরি সম্প্রচারের জন্য গোটা অযোধ্যা জুড়ে লাগানো হয়েছে এলইডি স্ক্রিন।

Advertisement