অ্যানড্রয়েড ও আইফোনে হাজির হল জিওমার্ট অ্যাপ, কীভাবে ব্যবহার করবেন?

jio mart is now available
jio mart is now available
Advertisement

রিলায়েন্স এর সাথে কিছুদিন আগেই গাঁটছড়া বেঁধেছে মার্ক জুকারবার্গের ফেসবুক। ফেসবুক ,হোয়াটসঅ্যাপ এবং রিলায়েন্স জিওর মিলিত বন্ধনে ডিজিটাল ইন্ডিয়া গড়ার ডাক দেওয়া হয়। এপ্রিলে প্রায় 44 হাজার কোটি টাকায় জিওর 9.99 শতাংশ মালিকানা কিনেছে ফেসবুক।

ভারতে প্রায় 40 কোটি মানুষ হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করেন। ভারতের অনলাইন কেনাকাটার শীর্ষস্থানীয় প্রতিষ্ঠান অ্যামাজন ও ফ্লিপকার্ট কে টেক্কা দিতে মাঠে নেমেছে মুকেশ আম্বানির জিওমার্ট।

চলতি বছরেই রিলায়েন্স কোম্পানি জিওমার্ট পরিষেবা শুরু করেছিল এতদিন শুধুমাত্র হোয়াটসঅ্যাপ থেকে এই পরিষেবা ব্যবহার করা যাচ্ছিল তবে এখন হাজির হলো পৃথক জিওমার্ট অ্যাপ।

আরও পড়ুনঃ ২ মিনিটেই দেড় লক্ষ চিনা ফোন বিক্রি হলো

জিও মার্ট অ্যাপ ব্যবহার করে নেট ব্যাংকিং ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ড সহ বিভিন্ন উপায়ে পেমেন্ট করা যাবে। এছাড়াও থাকছে ক্যাশ অন ডেলিভেরি অপশন।এই অনলাইন শপে অন্তত 50 হাজার পণ্য পাওয়া যাবে। রিলায়েন্স কোম্পানির দাবি 5% কম দামে কেনাকাটা করা যাবে।

আ্যন্ড্ররয়েড ফোনে প্লেস্টোর এবং আইফোনের অ্যাপ স্টোর থেকে জিওমার্ট অ্যাপ ডাউনলোড করে ইনস্টল করতে হবে। অন্যান্য ই-কমার্স অ্যাপ গুলোর মতই যে জিনিস গুলো কিনতে চান তা অর্ডার করে পছন্দের উপায় পেমেন্ট করতে হবে।

এই মুহূর্তে জিওমার্ট থেকে মুদিখানার জিনিস সবজি-ফল দুগ্ধজাত পদার্থ ও ব্যক্তিগত দেখাশোনার জিনিস পাওয়া যাচ্ছে যদিও চলতি মাসে জিওমার্ট থেকে স্বাস্থ্য ফ্যাশন ইলেকট্রনিক্স ঔষধ বিক্রি শুরু হবে বলে জানিয়েছেন মুকেশ আম্বানি।

আরও পড়ুনঃ লকডাউন না মেনে একাধিক গ্রেফতার সারা বাংলা জুড়ে

মে মাসে লঞ্চ হওয়ার পর থেকে প্রতিদিন আড়াই লক্ষ্য অর্ডার আসছে বলে জানায় মুকেশ আম্বানি।
কয়েকদিন আগেই ইতিমধ্যে কলকাতাসহ দেশের 200 টি শহরে উপলব্ধ হয়েছে। তবে ধীরে ধীরে গোটা দেশে ছড়িয়ে পড়বে।

Advertisement