ভাত না রুটি? কোনটা বেশি স্বাস্থ্যকর? জেনে নিন

ভাত না রুটি কোনটা বেশি স্বাস্থ্যকর জেনে নিন
ছবিঃ গুগল

বাঙালি আর ভাত যেন একে অপরের পরিপূরক। বাঙালি ভাত ছাড়া চলবে? তা কি কখনো হয়। কিছু কিছু বাঙালি আছে যারা ৪ বেলায় ভাত খেয়ে থাকেন। তবে বর্তমান সময়ে এসে অনেকেই ভাতের পাশাপাশি  রুটিও খান। কারণ হল স্বাস্থ্য সচেতনতা। স্বাস্থ্যের খেয়াল রাখার জন্য অনেকে আবার ভাত প্রায় ছেড়েই দিয়েছেন। অনেক মনে করেন যে ভাতের বদলে রুটি খেলে তা স্বাস্থ্যের পক্ষে বেশি ভালো কিন্তু আসলে কোনটা বেশি উপকারী? ভাত না রুটি? এইদুটিকে একসাথে খেলে কি আদেও কোন উপকার হবে? এটা নিয়েই আজকে আমাদের আলোচনা

ভাত রুটি পুষ্টির পার্থক্য কোথায়?

ভাত ও রুটির কার্বোহাইড্রেটের পরিমাণ পুরোপুরি সমান। ভারতের মধ্যে থাকা গ্লাইসেমিক ইনডেক্সও সমপরিমাণ থাকে। ভাতের থেকে রুটির মধ্য খাদ্য তন্তু বেশি থাকে। এর ফলে রুটি দীর্ঘক্ষন পেট ভর্তি রাখে ওদিকে ভাতে স্টার্চ বেশি থাকায় এটি তাড়াতাড়ি হজম হতে সাহায্য করে। ভাতে ভিটামিন বিও রুটির থেকে বেশি থাকে।

রুটির মধ্যে পটাশিয়াম ম্যাগনেশিয়াম সোডিয়াম প্রোটিন ক্যালসিয়াম ভাতের তুলনায় অনেকটাই বেশি থাকে। ৩০ গ্রাম ভাতে কার্বোহাইড্রেট যদি ২৩ গ্রাম থাকে তাহলে ৩০ গ্রাম আাটার রুটিতে কার্বোহাইড্রেট থাকে ২২ গ্রাম। ভাতে প্রোটিন থাকে ২ গ্রাম। আর আটার ক্ষেত্রে অর্থাৎ রুটিতে থাকে ৩ গ্রাম। ভাতে ফ্যাটের পরিমাণ ০.১গ্রাম এবং রুটিতে ফ্যাট থাকে ০.৫ গ্রাম। ফাইবার থাকে ০.১ গ্রাম এবং আটার রুটিতে থাকে ০.৭ গ্রাম। আয়রনের পরিমাণ হলো ০.২ মিলিগ্রাম এবং রুটিতে ১.৫ মিলিগ্রাম।একই পরিমান ভাতে ক্যালসিয়াম থাকে 3 মিলিগ্রাম এবং সেই পরিমাণ রুটিতে থাকে ১২ মিলিগ্রাম। এনার্জি থাকে ১০০ ক্যালোরি, এবং রুটিরও থাকে ১০০ ক্যালোরি।