বিজেপি নেতা মনি শুক্লার হ*ত্যা*র অ*ভি*যো*গ উঠল বিজেপির পক্ষ থেকে

বিজেপি নেতা মনি শুক্লার হ*ত্যা*র অ*ভি*যো*গ উঠল বিজেপির পক্ষ থেকে
বিজেপি নেতা মনি শুক্লার হ*ত্যা*র অ*ভি*যো*গ উঠল বিজেপির পক্ষ থেকে

কলকাতাহান্ট.কম : বিজেপি নেতা মনি শুক্লাকে হত্যা করার অভিযোগ তুলল বিজেপি। এই ঘটনার পর থেকে টিটাগড় ও ব্যারাকপুর এলাকা তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপি দলের প্রতিদ্বন্দ্বিতার কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়। রাজ্যের নগর উন্নয়নমন্ত্রী ফিরাদ হাকিম ও আমাদের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক এর নেতৃত্বে তৃনমূল সংস্থাগুলো মঙ্গলবার দিন একটি মিছিল বার করে। এই সমস্ত প্রতিদ্বন্দ্বীতা শেষ করে ওই এলাকায় শান্তি ফিরিয়ে আনার জন্য তারা দীর্ঘ ৪ কিলোমিটার পথ হেঁটে একটিনমিছিল করেন। টিটাগড় পৌরসভা থেকে ব্যারাকপুর চিড়িয়া মোড় পর্যন্ত এই মিছিল হয়েছিল।

মিছিলের পর জনসভায় গিয়ে হাকিম তার বক্তব্যে বলেন,“অর্জুন সিং ব্রিগেড ব্যারাকপুর এলাকায় সন্ত্রাসের রাজত্ব চালিয়েছে, লোকজন ভীত। এই সমাবেশ শান্তি পুনরুদ্ধারের আমাদের প্রচেষ্টার অংশ।”

আরও পড়ুনঃ এক বছরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সম্পত্তির পরিমাণ বেড়ে হয়েছে ৩৬ লক্ষ টাকা

তিনি আরো বলেন যে,“শুক্লা একজন উঠতি রাজনীতিবিদ ছিলেন, যিনি চাপে পড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন।” তিনি জানান “মনীশ ২০১৯ সালের লোকসভা ভোটে দীনেশ ত্রিবেদীর হয়ে প্রচার করেছিলেন। চাপের মুখে, তাঁর ইচ্ছার বিরুদ্ধে তিনি বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন। এই হত্যার পর এই এলাকায় সন্ত্রাসবাদ বেড়েছে। সিআইডি এই মামলাটি তদন্ত করছে। ইতিমধ্যে কিছু লোককে গ্রেপ্তারও করা হয়েছে। শিগগিরই মাস্টারমাইন্ডকেও ধরে ফেলা হবে,”

আরও পড়ুনঃ বিপুল টাকা আসতে চলেছে মিথুনরাশির, জেনে নিন অক্টোবর মাসের মাসিক রাশিফল

বিজেপি নেতা অর্জুন সিং বলেন যে তৃনমূলের এই কর্মসূচিটা হল ‘একটি বিজয় সমাবেশ’। তার মতে, তারা জনগণের কাছ থেকে উপযুক্ত উত্তর পাবে এবং তিনি বলেন,“সিবিআই তদন্তের দাবিতে আমরা ১৬ ই অক্টোবর একটি হল্লা বল প্রচার শুরু করব। ”