খড়কুটো পরিবারে নেমে এলো শোকের ছায়া, আহত হলেন ধারাবাহিকের জনপ্রিয় অভিনেত্রী

খড়কুটো পরিবারে নেমে এলো শোকের ছায়া, আহত হলেন ধারাবাহিকের জনপ্রিয় অভিনেত্রী

কলকাতা হান্ট ডেস্কঃ  খুব অল্প সময়ের মধ্যে ধারাবাহিক প্রেমীদের মন জয় করতে সক্ষম হয়েছে স্টার জলসার খড়কুটো।প্রতিদিন সন্ধ্যে হলেই টিভির সামনে এই ধারাবাহিকটি দেখতে বসে যান আমাদের বাড়ির মা— দিদিমারা। এই ধারাবাহিকের মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী তৃণা সাহা এবং অভিনেতা কৌশিক রায়।এই ধারাবাহিকটির চিত্রনাট্যকার লীনা গঙ্গোপাধ্যায় এবং প্রযোজক শৈবাল বন্দ্যোপাধ্যায়।অনেকেরই মতে তথাকথিত ছন্দের বাইরে গিয়ে তৈরি করা হয়েছে এই ধারাবাহিকটি। এর ব্যতিক্রমী গল্পটি অনেক মানুষের মনে গেঁথে গিয়েছে। খড়কুটো একটি মধ্যবিত্ত পরিবারের গল্প,এই পরিবারটি কিছুটা প্রাচীনপন্থী ধ্যান-ধারণা আঁকড়ে ধরে বাঁচতে ভালোবাসে। সেই পরিবারেই হঠাৎ করে আচমকা প্রবেশ ঘটে তৃণা ওরফে গুনগুনের। গুনগুন শিক্ষিত ,সুন্দরী এবং আধুনিকা। স্বাভাবিকভাবেই কাহিনীতে নতুন মোড় আসে।কারণ শিক্ষিতা এই মেয়েটি ওই পরিবারের কাছে অনেকটাই বেমানান।ধারাবাহিকের শুরুতে দেখা গিয়েছিল সৌজন্য এবং গুনগুন কেউ তারা একে অপরকে পছন্দ করতেন না। কিন্তু শেষ পর্যন্ত এক বছরের জন্য তাদের বিয়ে হয়।বিয়ের আগে থেকে শুরু করে বিয়ের পরে তাদের মজাদার মুহূর্তগুলি বেশ উপভোগ করেন দর্শকেরা।

ধারাবাহিকের সবথেকে আকর্ষনীয় চরিত্র গুনগুন। যেভাবে তিনি নিজের খুনসুটি দিয়ে দর্শকদের মাতিয়ে রাখেন তা নিঃসন্দেহে অভাবনীয়। যদিও কিছুদিন আগে দর্শকদের কাছ থেকে অভিযোগ এসেছিল যে অভিনয়ে অতিরিক্ত ন্যাকামি করছেন গুনগুন। বড়দের বকা শোনার পর তারস্বরে কান্না,অতিরিক্ত চঞ্চলতা সবকিছুই গুনগুনের চরিত্রটিকে নষ্ট করে তুলছিল ধীরে ধীরে। কিন্তু এই অতিরিক্ত ন্যাকামি সত্বেও সর্বপরি আপামর বাঙালি, মধ্যবিত্ত, যৌথ পরিবারের ভাবধারায় অনুপ্রণিত এই ধারাবাহিক দেখে অনেকেই নিখাদ আনন্দ খুঁজে পান । তবে হঠাৎ করেই এই খড়কুটো পরিবারে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। কারণ ধারাবাহিকের একজন জনপ্রিয় অভিনেত্রী গুরুতরভাবে আহত হয়েছেন। ঠিক এই কারণেই অনুরাগীদের মনমরা হয়ে পড়তে হয়েছে।

প্রসঙ্গত এই ধারাবাহিকের অত্যন্ত প্রিয় একটি চরিত্র ‘চিনি’ ওরফে প্রিয়াঙ্কা মিত্র। খড়কুটো সিরিয়ালে গুনগুনের ননদের চরিত্রে অভিনয় করছেন প্রিয়াঙ্কা। তার অভিনয় বেশ পছন্দ দর্শকদের। কিন্তু সম্প্রতি হঠাৎ করেই দুর্ঘটনাবশত পা ভেঙে গিয়েছে প্রিয়াঙ্কার। যে কারণে শুটিংয়ে আসতে পারছেন না তিনি।ফলস্বরূপ আপাতত ধারাবাহিকে তার অভিনীত চরিত্রটি কিছুদিন সম্পূর্ণরূপে বিলীন রাখা হবে। সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে গতকাল নিজের পা ভেঙে যাওয়ার কথা জানিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা। সাথে সাথেই প্রিয়াঙ্কার সেই পোস্টে তার অনুরাগীরা সমবেদনা জানিয়েছেন অভিনেত্রীকে।

অনুরাগীরা প্রার্থনা করেছেন যাতে দ্রুত আরোগ্য লাভ করেন অভিনেত্রী। কারণ ‘চিনি’ অর্থাৎ প্রিয়াঙ্কাকে ছাড়া খড়কুটো পরিবার একেবারেই অসম্পূর্ণ থেকে যাবে।রিল লাইফের ননদের এই পোস্টে আবার কমেন্ট করেছেন তৃণা সাহা । তিনি লিখেছেন, ‘তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে ওঠো বেবি’।উল্লেখ্য গুনগুনের সঙ্গে চিনির পর্দা এবং বাস্তব জগতের রসায়ন বেশ চোখে পড়ার মতো। সাম্প্রতিক রিল লাইফের বিয়েতে জমিয়ে টুম্পা সোনা গানে চিনি এবং সাজি দুই ননদকে নিয়ে নেচেছিলেন গুনগুন। সেই সময় তাদের নাচের এই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় বিশাল ভাইরাল হয়ে উঠেছিল। যাইহোক বেশ কয়েক দিন ধরেই খড়কুটো ধারাবাহিকের টিআরপি ক্রমশ কমতে শুরু করে দিয়েছে। এরইমধ্যে আহত হওয়ার কারণে প্রিয়াঙ্কার অনুপস্থিতি কতটা প্রভাব ফেলবে ধারাবাহিকের উপর তাই দেখার বিষয়।