ফনি-গতির পর এবার ঘূ’র্ণিঝ’ড়’গনি’, যেসব অঞ্চলে থাকবে ভ’য়া’নক স’ত’র্কতা জা’রি!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-আমরা যত উন্নত হচ্ছি তত উন্নত হচ্ছে আমাদের আশেপাশ । কিন্তু এই উন্নতি কবলে পড়ে কোথাও যেন মাঝে মাঝে করে ফেলি ক্ষ’তি প্রকৃতির । এবং সেই রূপ প্রকৃতি মাঝেমধ্যে ফিরিয়ে দেয় ভ’য়া’বহ সব কান্ড আমাদর দিকে । ঠিক প্রকৃতি এর সেরকমই ভয়াবহ প্রকৃতির একটি কান্ড হলো ঘূ’র্ণিঝ’ড় । ঘূ’র্ণিঝ’ড় কথা শুনলেই রীতিমতো ভী’ত স’ন্ত্র’স্ত হয়ে পড়ে অনেকেই ।

কারণ এর আগে যে সমস্ত ঘূ’র্ণিঝ’ড়। দেশ বা দেশের বাইরে দেখা গেছে সেগু’লি এনেছিল ব্যাপক ক্ষ’য়ক্ষ’তি ।নিয়েছিল অনেক মানুষের প্রাণ ।বেশ কিছুদিন আগে পশ্চিমবঙ্গের উপর বয়ে গিয়েছিল আম্ফান এর মতন বিধ্বংসী ঘূ’র্ণিঝ’ড়। লক্ষ লক্ষ মানুষকে করেছিল ঘরছাড়া তার পাশাপাশি বি’দ্যুৎস্পৃ’ষ্ট হয়ে মা’রা গিয়েছিলেন অনেকে ।লক্ষ লক্ষ গাছ উ’প’ড়ে পড়ে ছিল রাস্তার ধারে ।

বেহাল হয়ে পড়েছিল জনজীবনে। এক বিপুল পরিমাণ আর্থিক ক্ষ’তি গ্রস্থ হয় পশ্চিমবঙ্গ। তবে ধীরে ধীরে তার রেশ কাটিয়ে পশ্চিমবঙ্গ আবার সুস্থ স্বাভাবিক জীবনের দিকে পা বাড়িয়েছে । কিন্তু আরো একবার সেই ঘূ’র্ণিঝ’ড়ের আশংকা রয়েছে বলে জানা গিয়েছে।ঘূ’র্ণিঝ’ড়ে বিভিন্ন নাম হয়ে থাকে। অঞ্চল বিশেষে। এই নামের পরিবর্তন ঘটে। তবে এবারে যে ঘূ’র্ণিঝ’ড় তার নাম টাইফেন।

সাধারণত চীন-জাপান উপত্যকায় হয়ে থাকে এ দগীরণের ঝ’ড়। এবার সেই টাইপেন আছড়ে পড়ল ফিলিপাইন দ্বীপপুঞ্জ এবং কেড়ে নিল অনেকের প্রাণ ।ফিলিপাইন্সের হিসেবে এই গনি চলতি বছরের সর্বাধিক শ’ক্তিশালী ঘূ’র্ণিঝ’ড়। রবিবার ভোর হওয়ার আগে কাতান্দুয়ানিজ দ্বীপে আছড়ে পড়ে এই টাইফুন। সর্বোচ্চ গতিবেগ ছিল ঘন্টায় ২২৫ কিলোমিটার।

ঝড়ের ঝাপটায় একাধিক গাছ উপড়ে পড়ে, বেশ কিছু বাড়ির ছাদও ক্ষ’তিগ্রস্থ হয় বলে জানা গিয়েছে।ফিলিপাইন্সের আবহাওয়া বিভাগ গনিকে “সুপার টাইফুন” থেকে নামিয়ে শুধুমাত্র টাইফুন হিসেবেই বিবেচিত করা হচ্ছে। পাশাপাশি এই টাইফুনের ব্যাপক গতি ও সঙ্গী প্রবল বৃষ্টিতে একাধিক এলাকা ক্ষ’তিগ্র’স্থ হয়েছিল বলে জানানো হয়েছে। টাইফুন গনির দাপটে ফিলিপিন্সে মৃত্যু হল কমপক্ষে ৪ জনের। অন্যদিকে উপকূলবর্তী এলাকায় ঘর ছাড়া কয়েক হাজার মানুষ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button