ঠাণ্ডা আমেজ সঙ্গে নিয়ে সপ্তাহ শুরু বাঙালির! এক ধাক্কায় অনেকটাই নামল রাতের তাপমাত্রা

আবহাওয়ার সবরকম খবর আগে থেকে জেনে রাখা উচিত। কারণ আগে থেকে জানা থাকলে আগে থেকেই সচেতন হওয়া যাবে। তাই সবধরনের খবর জানার সাথে সাথে আবহাওয়া সম্পর্কেও আমাদের সম্যক জ্ঞান থাকা জরুরি। এখন তো আমরা মুঠোফোন থেকেই আবহাওয়ার খবর পেয়ে থাকি। এটাই আমাদের বড়ো সুবিধার বিষয়।

রাজ্যে প্রবেশ করতে শুরু করেছে শীত। এবারে অনেক আগে থেকেই যেন শীত অনুভূত হচ্ছে। তাপমাত্রার পারদও নেমেছে এক ধাক্কায় অনেকটা। ফ্যান বন্ধ রাখতে হচ্ছে, বিশেষত রাতের বেলায় ফ্যান লাগছেই না। বরং রাতের বেলায় হালকা চাদর গায়ে দিতে হচ্ছে। সকালবেলা আবার শিশির পরছে। এই সপ্তাহের শুরুতে তো পারদ আরোও কিছুটা কমেছে। বঙ্গবাসীর মনে তাই একটাই প্রশ্ন তাহলে কি এবারে পাকাপাকিভাবে বর্ষা প্রবেশ করতে চলেছে বঙ্গে?

রাজ্যে প্রবেশ করেছে উত্তরে হাওয়া। তাই এখন বঙ্গবাসীর মনে একটাই প্রশ্ন কবে থেকে রাজ্যে জাঁকিয়ে শীত পড়তে চলেছে। আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস দিয়েছে রাত এবং ভোরের দিকে শীত শীত ভাব অনুভূত হবে ঠিকই তবে রাজ্যে এখনই পাকাপাকিভাবে শীত প্রবেশ করবে না। শীত আসতে এখনও বেশকিছু সময় অপেক্ষা করতে হবে। তবে কালীপুজোর রাতের দিকে তাপমাত্রা তাপমাত্রা ২০ ডিগ্রির নীচে নামতে পারে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। ভাইফোঁটার আগে থেকেই শীত শীত ভাব অনুভূত হবে।

দক্ষিণবঙ্গের সকালের দিকে কিছু কিছু জায়গায় কুয়াশা পরছে। এই কুয়াশা এবার থেকে ভোরের দিকে দেখা যাবে। একই সাথে ভোরের দিকে থাকবে শীতের আমেজ। কিন্তু বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গেই বাড়বে তাপমাত্রা। দিনের বেলার তাপমাত্রা থাকবে ৩০ থেকে ৩২ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে। রাতের দিকের তাপমাত্রা থাকবে ২২ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি। দক্ষিণবঙ্গের পাশাপাশি উত্তরবঙ্গের আবহাওয়াতেও আসবে পরিবর্তন।

উত্তরবঙ্গে আগামী কয়েকদিন শুষ্ক থাকবে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস। তবে আজ এবং কাল দার্জিলিং ও কালিম্পঙে দু-এক পশলা হালকা বৃষ্টি হতে পারে। আর দার্জিলিংয়ের তাপমাত্রা থাকবে স্বাভাবিকের থেকে নীচে। এই মুহূর্তে দার্জিলিঙের তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি। দুই তারিখের পর থেকে আরও কমবে তাপমাত্রার পারদ। ফলে বেশ ঝাঁকিয়ে ঠান্ডা পরবে উত্তরবঙ্গে। তবে জলপাইগুড়ি,কোচবিহার, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, উত্তর এবং দক্ষিণ দিনাজপুরের আবহাওয়া আরামদায়ক থাকবে।

পশ্চিমের জেলাগুলিতে ইতিমধ্যেই তাপমাত্রা কমতে শুরু করেছে। আবহাওয়া দফতর সূত্রে আবার জানানো হয়েছে সোমবার এবং মঙ্গলবার থেকে পশ্চিমের জেলাগুলিতে তাপমাত্রা আরোও কমবে। এমনকি পশ্চিমের জেলাগুলিতে শীতের আমেজ একটু বেশি অনুভূত হবে। অর্থাৎ পশ্চিমের জেলাগুলিতেও শীতের প্রকোপ যে বাড়বে সেটা স্পষ্টভাবে বোঝা যাচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button