আসছি আবহাওয়ার খবরে- বাংলার এই পাঁচ জেলায় পড়বে হার কাঁপানো ঠান্ডা, জানাচ্ছেন আবহাওয়াবিদেরা!

নিজস্ব প্রতিবেদন:– বেশ তাড়াতাড়িই এবার শীতের আগমন ঘটছে শহরতলীতে।সাধারণত এই সময় এতটা ঠান্ডা না পড়লেও,এবছর নভেম্বরের প্রথম থেকেই তাপমাত্রার পারদ ২০ ডিগ্রির নীচে।গায়ে শির শিরে কাঁপুনিতে, মোটা পোশাক ব্যবহার করতে হচ্ছে শহরবাসীদের।আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস মত বেশ ঠাণ্ডা পড়তেও শুরু করে দিয়েছে।

আজকের আবহাওয়া লক্ষ করলে দেখা যাচ্ছে, রোদ ঝলমলে হালকা মেঘ যুক্ত আকাশ।রোদের তীব্রতা আগের মতন না থাকলেও, বেশ একটা মনোরমভাব। এবার আগামী ২-৩ মাস জাঁকিয়ে থাকবে হাড়কাপানো ঠান্ডা তার আভাস মিলছে এখন থেকেই।সকাল সন্ধ্যা মানুষের গায়েও শীতবস্ত্র পোশাকের রূপ নিয়েছে। আজকের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে ৩১ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে এবং

সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ১৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে। তবে সকালের তাপমাত্রা একটু বেশি থাকলেও, রাতের তাপমাত্রা বেশ খানিকটা কম থাকবে,এমনটাই জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা। এদিকে জম্মু-কাশ্মীর, শ্রীনগরে তাপমাত্রা শূন্য। লুধিয়ানা, পাঞ্জাব পুনে ও দেরাদুনের তাপমাত্রা ১৪.৩ ডিগ্রী।আবহাওয়া দফতরের আ’শ’ঙ্কা, এই বছর বাংলায় এমন ঠাণ্ডা অনুভুত হতে চলেছে,

যা বিগত ৫৮ বছরেও মানুষ অনুভব করেনি। পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, দার্জিলিং, জলাপাইগুড়ি এইসকল জেলায় জাঁ’কিয়ে শীত পড়বে এমনটাই জানা যাচ্ছে। এসব এলাকার ফাঁকা জায়গায় এখনি তাপমাত্রা ১৫° সেলসিয়াসের নীচে নেমে যাচ্ছে। নভেম্বরের প্রথম দিক থেকেই এইসব অঞ্চলে তাপমাত্রার পারদ অনেকটাই নীচে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button