হোয়াটসঅ্যাপ এর পরিবর্তে কোন ম্যাসেজিং অ্যাপ সবথেকে ভালো, জেনে নিন খুঁটিনাটি

Which messaging app is best instead of WhatsApp, know the details
Which messaging app is best instead of WhatsApp, know the details

বাংলা খবর ডেস্ক: হোয়াটসঅ্যাপ তাদের নতুন নিয়ম আনতেই যেটা নিয়ে বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে দুনিয়া জুড়ে। ইতিমধ্যেই হোয়াটসঅ্যাপ এর এই নতুন নিয়ম শুনে অন্য কোন অ্যাপ এর দ্বারস্থ হচ্ছেন। সবথেকে সমস্যায় পড়েছেন যারা নিয়মিত ম্যাসেজিং অ্যাপ ব্যবহার করেন তারা। চলুন এক নজরে দেখে নেওয়া যাক হোয়াটসঅ্যাপ এর প্রতিদ্বন্দ্বী অ্যাপ গুলি কে কোথায় দাঁড়িয়ে।

হোয়াটসঅ্যাপ- হোয়াটসঅ্যাপএর নতুন নীতি তে দেখা যাচ্ছে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারী ব্যক্তির তথ্য তারা ভাগ করে নেবেন মালিক কোম্পানি ফেসবুকের সাথে। আর ফোনে যদি লোকেশন অন না করা থাকে তাহলে হোয়াটসঅ্যাপ যেমন করেই হোক লোকেশন জানার পূর্ন স্বাধীনতা পাবে। এছাড়াও আরো নানান ব্যক্তিগত বিষয় যেমন অনলাইন শপিং বা টাকারলেনডেন কিছুটা সব কিছুই তারা জানতে পারবেন। হোয়াটসঅ্যাপ ফোন থেকে ডিলিট করে দিলেও রেহাই নেয়। এইসব তথ্য থেকে যাবে সার্ভারেই।

সিগন্যাল- এটি মূলত হোয়াটসঅ্যাপ এর যুগ্ম নির্মাতা ব্রায়ান একশন ও মার্লিনস্পেক ২০১৮ সালে তৈরি করেছিলেন এই অ্যাপ। ব্যবহারকারীদের মতে এই অ্যাপটি সবচেয়ে নিরাপদ। কারণ এই অ্যাপটিতে একাউন্ট খুলতে শুধুই ফোন নাম্বার চাওয়া হয়। এছাড়া একটি পিন সেট করতে বলা হয় যেটি মাঝে মাঝেই ভেরিফিকেশন এ আসে। ভুল পিন দিলে খুলবেনা সেই অ্যাপ। এছাড়াও আরো নানান কারণে এটিকে নিরাপদ ভাবা হয়। কারণ দুজন চ্যাটিং করলেও এই অ্যাপটিতে পরিচয় গোপন রাখা যায়।

টেলিগ্রাম- এই অ্যাপটি রাশিয়ান দুই ভাই পাভেল ও নিকোলাই দুর্ভ ২০১৩ সালে তৈরি করেন। এই অ্যাপটি বেশ কিছু কারণে মানুষকে আকৃষ্ট করেছে। সিক্রেট চ্যাট ব্যবহারকারীদের কাছে এই অ্যাপটি খুবই পছন্দের। এছাড়াও এই অ্যাপ টির মাধ্যমে সর্বোচ্চ ২ জিবি ফাইল পাঠানো যায়। অর্থাৎ সিনেমা বা গান ও পাঠানো যায় সহযেও। এছাড়াও অ্যাপ টিতে ম্যাসেজ শিডিউল করা যায়। অর্থাৎ নির্দিষ্ট সময়ে ম্যাসেজ শিডিউল করা থাকলে অ্যাপ টি ওই সময় নিজে থেকেই শিডিউল করা ম্যাসেজ টি সেন্ড করে দেবে। এছাড়াও নির্দিষ্ট সময় পর ম্যাসেজ ডিলিট হয়ে যাওয়ার অপশন ও আছে অ্যাপটিতে। আর এই সব ফিচার গুলির জন্যই গত বছরের শেষে এই অ্যাপ টি গড়ে মাসে ব্যবহারকারীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪০ কোটিতে।

ভাইবার- সম্প্রতি জনপ্রিয়তা পেয়েছে এই অ্যাপটি। কম্পিউটার বা ফোন উভয় এই ব্যবহার করতে পারবেন এই অ্যাপ। এছাড়াও এই অ্যাপটির মাধ্যমে স্ক্রিন শেয়ার করা যায়। অর্থাৎ আপনার কম্পিউটারে থাকা কোন জিনিস অন্যকে দেখতে পারবেন।

Get all the Latest Bengali News KolkataHunt.Com. catch out all Bangla Khobor here, follow us on Twitter and Facebook, Instagram