মা কালীর পুজো করলে সংসারে সুখ সমৃদ্ধি লাভ হয়

কলকাতা হান্ট ডেস্কঃ মহাকালীর পূজো নিষ্ঠা ভাবে করলে সংসারে সুখ সমৃদ্ধি লাভ হয় এবং পরিবারের সকলের মঙ্গল হয়। বহু শতাব্দী ধরে মানুষ এই মহাশক্তির আরাধনা করে আসছেন। বলা হয় কলকাতার কালীঘাট ও দক্ষিণেশ্বরের মায়ের মন্দির খুবই জাগ্রত। রানী রাসমনির কথা আমরা সকলেই হয়তো জানি। তিনি স্বপ্না দাস পাল মায়ের মন্দির গড়ার। আর সেই স্বপ্নাদেশ অনুযায়ী তিনি মায়ের মন্দির করেন এবং সেই স্থানকে বর্তমানে দক্ষিণেশ্বর আমি চিনি।

মা কালীর পুজো করলে সংসারে সুখ সমৃদ্ধি লাভ হয়

যখন মা সতী মহাদেব অর্থাৎ শিবকে বিবাহ করতে চাইলেন তখন তার পিতা অপমান করেন। তাই পিঠা শিব কে অপমান করার জন্য সতী দেহ ত্যাগ করে। তখন মহাদেব শিব সতীর দেহ কে নিয়ে প্রলয় নৃত্য শুরু করেন। এই প্রলয় থামাতে না পেরে ভগবান শ্রীকৃষ্ণ তার সুদর্শন চক্র দিয়ে মাসতি দেহকে খন্ড বিক্ষত করে দেয়। আর সতীর অঙ্গের খন্ড গুলি এক একটি স্থানে গিয়ে পড়ে আর তৈরি হয় মায়ের মন্দির।

মা কালীর পুজো করলে সংসারে সুখ সমৃদ্ধি লাভ হয়

হিন্দু তীর্থ স্থানের মধ্যে মা সতীর চোখের মনি অর্থাৎ তারা যে স্থানে পড়েছিল সেই স্থানে মায়ের মন্দির হয় এবং সেটি এখন তারাপীঠ নামে পরিচিত। অনেকেই বিশ্বাস করেন যে এই মন্দিরে নিষ্ঠা সহকারে মায়ের পুজো করলে মায়ের সামনে ইচ্ছা কথা প্রকাশ করলে তা অবশ্যই পূরণ হয়।